শত্রু দেশের ঘুম উড়িয়ে, ফের ভারতের মাটি ছুঁতে চলেছে আরও ১০ রাফাল যুদ্ধবিমান!

শত্রু দেশের ঘুম উড়িয়ে, ফের ভারতের মাটি ছুঁতে চলেছে আরও ১০ রাফাল যুদ্ধবিমান!
শত্রু দেশের ঘুম উড়িয়ে, ফের ভারতের মাটি ছুঁতে চলেছে আরও ১০ রাফাল যুদ্ধবিমান! / ছবি সৌজন্যে- Twitter Post By @IAF_MCC

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এ বিষয়ে কোনও সন্দেহই নেই যে, ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর শক্তি বাড়িয়েছে যুদ্ধবিমান রাফাল। চিনের উপর নজরদারি রাখতে এই রাফাল যুদ্ধবিমান ব্যবহার করছে ভারত।

জানা গিয়েছে, এরই মধ্যে ভারতীয় বায়ুসেনার অস্ত্রভাণ্ডারে খুব তাড়াতাড়ি আরও ১০ টি রাফাল যুদ্ধবিমান অন্তর্ভূক্ত হতে চলেছে।  সরকারি সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে যে, আরও তিনটি রাফাল আসতে চলেছে আগামী দিন দুই- তিনের মধ্যেই। এও জানা গিয়েছে যে, এপ্রিল মাসের দ্বিতীয় পক্ষেই ৭-৮ টি রাফাল ও সেগুলির ট্রেনার ভার্সন ভারতে পৌঁছতে পারে।

উল্লেখ্য, এখনও অবধি ১১ টি রাফাল ভারতে রয়েছে। আর এই ১০ টি এলে রাফাল যুদ্ধবিমানের সংখ্যা বেড়ে হবে ২১। ফ্রান্সের কাছ থেকে ভারত মোট ৩৬ টি রাফাল কিনেছে। এর মধ্যে ১১ টি আগেই এসে পৌঁছেছে ভারতে। সেগুলি পঞ্জাবের অম্বালায় গোল্ডেন অ্যারো স্কোয়াড্রনের অংশ। আরও যে ১০ টি রাফাল যুদ্ধ বিমান আসছে সেগুলিও আম্বালায় থাকবে। তবে, এর মধ্যে কয়েকটি মোতায়েন করা হবে পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারায়।

সূত্রের খবর, হাসিমারায় এজন্য স্কোয়াড্রন তৈরির প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। উত্তরবঙ্গের চিন-ভুটান ট্রাইজাংশনের কাছে হাসিমারায় এই যুদ্ধবিমানগুলি মোতায়েন রাখা হবে। চিনের সঙ্গে ভারতের টানাপোড়েনের মধ্যে এই যুদ্ধবিমানগুলিকে চিনের ওপর নজরদারির কাজে ব্যবহার করছে ভারত। নতুন আরও ১০ টি বিমান যোগ হলে, সেই কাজ আরও সহজ হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রথম দফায় পাঁচটি রাফাল ভারতে পৌঁছেছিল গত বছরের ২৮ জুলাই এবং আনুষ্ঠানিকভাবে সেগুলি বায়ুসেনার অস্ত্রসম্ভারে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছিল ১০ সেপ্টেম্বর। দ্বিতীয় দফায় রাফাল ফাইটার জেট পৌঁছেছিল নভেম্বরে। এই রাফাল যুদ্ধবিমান ভূমি ও সমুদ্রে হানা, আকাশ পথে আধিপত্য, পরমাণু আক্রমণ ইত্যাদি বিভিন্ন কাজে পারদর্শী।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.