রাজ্যে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! একদিনে আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ১৭ হাজার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও

রাজ্যে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! একদিনে আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ১৭ হাজার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও
রাজ্যে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! একদিনে আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ১৭ হাজার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশের পাশপাশি ক্রমশ আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি। রেকর্ড ভাঙছে প্রতিদিন, গড়ছে নয়া রেকর্ড। বুধবার রাজ্যে সংক্রামিত হয়েছেন ১৭ হাজার ২০৭ জন। আর মৃত্যু হয়েছিল ৭৭ জনের।

আর গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ প্রায় সাড়ে ১৭ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছে গেল। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বাংলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৪০৩ জন। যা বাংলায় এই প্রথম। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ৮ লক্ষ ১০ হাজার ৯৫৫ জন।

বুধবারের পর এদিনও বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর সংখ্যা ৮৯। কালকের পর, ফের একবার মৃত্যুতে নয়া রেকর্ড হয়েছে বাংলায়, গতকাল এই সংখ্যাটাই ছিল ৭৭। ফলে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ২৪৮ জনের। কমেছে সুস্থতার হারও। এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৫.০২ শতাংশ।

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এতদিন প্রথম স্থানে ছিল কলকাতা। স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, কলকাতায় একদিনে আক্রান্ত হয়েছে ৩,৯০১ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৩ জনের। তবে এবার সংক্রমণের নিরিখে গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতাকে ছাপিয়ে গেছে উত্তর ২৪ পরগণা। এই জেলায় একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ৩,৯১২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় একদিনে সংক্রমিতের সংখ্যা ৯৯০। হাওড়া ও হুগলিতে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত যথাক্রমে ৯২৭ ও ৯৩০ জন। উল্লেখযোগ্যভাবে দৈনিক সংক্রমণ বাড়ল নদিয়া, বীরভূমে ও পশ্চিম বর্ধমানে। একদিনে এই তিন জেলায় আক্রান্ত যথাক্রমে ৭৪৯, ৭৪৬ ও ৮৯৩ জন।

এছাড়াও অন্যান্য জেলা যেমন- পূর্ব বর্ধমানে ৫৮৫ জন, পূর্ব মেদিনীপু্রে ৫৪৩ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ২৬১ জন, ঝাড়গ্রামে ৭৪ জন, বাঁকুড়াতে ৪০২ জন, পুরুলিয়াতে ৩৫৪ জন, বীরভূমে ৭৪৬ জন, মুর্শিদাবাদে ৫৫৩ জন, মালদাতে ৫২৮ জন, দক্ষিণ দিনাজপু্রে ১৭৪ জন, উত্তর দিনাজপুরে ২৯৩ জন, জলপাইগুড়িতে ১৫২ জন, কালিংপং-এ ৩৬ জন, দার্জিলিং-এ ১৯১ জন, কোচবিহারে ১৫১ জন, আলিপুরে ৫৮ জন গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে, রাজ্যে বেড়েছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যাও। যা উদ্বেগ এবং আতঙ্ক আরও বাড়িয়ে তুলছে। বর্তমানে রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ১০ হাজার ২৪১। পাশপাশি করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়েছেন গত ২৪ ঘণ্টায় ১২,৮৮৫ জন। যা অবশ্যই আশাব্যঞ্জক। এখন পর্যন্ত এ নিয়ে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ৬ লক্ষ ৮৯ হাজার ৪৬৬ জন। যদিও প্রতিদিনই কমছে সুস্থতার হার। এটাও চিন্তার বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৫.০২ শতাংশ।

বর্তমান ভয়ঙ্কর করোনা পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে চলছে করোনা টিকাকরণ। পাশাপাশি চলছে করোনা পরীক্ষাও। উল্লেখ্য, বিশেষজ্ঞরা শুরু থেকেই আরও বেশি করে করোনা পরীক্ষা এবং টিকাকরণের উপর জোর দেওয়ার কথা বলে আসছেন। তাই দেশের পাশাপাশি বাংলাও এই ধারার ব্যতিক্রম নয়। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৩ হাজার ৭২৪ জনের।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.