নেশাগ্রস্ত অবস্থায় কেরামতি! গোখরোর ছোবলে প্রাণ খোয়ালেন এক ব্যক্তি

নেশাগ্রস্ত অবস্থায় কেরামতি! গোখরোর ছোবলে প্রাণ খোয়ালেন এক ব্যক্তি
নেশাগ্রস্ত অবস্থায় কেরামতি! গোখরোর ছোবলে প্রাণ খোয়ালেন এক ব্যক্তি / প্রতীকী ছবি

ফের রায়গঞ্জে সাপের ছোবলে মৃত্যু এক ব্যাক্তির। প্রশিক্ষণ জানা ছিল না তার। তবুও সাপ নিয়ে বাহাদুরি রায়গঞ্জের বাসিন্দা রবীন্দ্রনাথ দত্তের। বয়স ৫১ এর কাছাকাছি। একদিকে প্রশিক্ষণ নেই অপরদিকে তিনি ছিলেন মদ্যপ অবস্থায়। আর সেটিই হল কাল। মদ্যপ অবস্থায় সাপ ধরতে গিয়ে প্রাণ হারালেন সেই ব্যাক্তি । সূত্রের খবর মদ্যপ অবস্থায় সাপ ধরে পকেটে পুরে রাখতেন তিনি। আবার কখনও গলায় পেঁচিয়ে রাখতেন তিনি। কিন্তু সেগুলি আর বেশিদিন করা হল না। এদিন মদ্যপ অবস্থায় সাপ ধরতে গিয়েই প্রাণ খোয়ালেন তিনি।

এদিন মহারাজ হাট এলাকায় রবীন্দ্রনাথ আমবাগানে একটি গোখরো সাপ দেখেন। স্বাভাবিক ভাবেই তিনি সব সময় মদ্যপ অবস্থায় থাকেন। তাই সেই সময়ও সাপটি ধরে সকলের সামনে এনে বাহাদুরি দেখাতে শুরু করেন। আর সেই সময় বা হাতে ছোবল মারে সাপটি। প্রথমে কিছু বুঝতে পারেননি তিনি। হটাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। আর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় হসপিটালে। তারপর তার অবস্থা সিরিয়াস হয় এবং তাকে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সেখানেই প্রাণ হারান তিনি।

রায়গঞ্জে এর আগেও প্রশিক্ষণ ছাড়া গোখরো সাপ ধরতে গিয়েছিলেন বিশ্বজিৎ ঘোষ নামে এক ব্যক্তি। তিনি বোতলের মধ্যে সাপ ঢোকাতে গিয়ে সাপের ছোবল খান এবং তার মৃত্যু হয়। তাছাড়াও এক যুবক ইউটিউব দেখে সাপ ধরতে গিয়েও সাপের ছোবলে প্রাণ হারান। রবীন্দ্রনাথের প্রতিবেশীর কথা তাকে সকলেই বারণ করতেন বিনা প্রশিক্ষণে সাপ ধরার জন্য। কিন্তু তিনি তাদের কথা শুনতেন না। তারই মাশুল দিতে হল ব্যাক্তিকে।