‘ভেবেছিলাম OnePlus 9 pro ফোন’- চুরি করেও মোবাইল ফিরিয়ে দিয়ে বলল চোর! হতবাক ফোনের মালিক

'ভেবেছিলাম OnePlus 9 pro ফোন'- চুরি করেও মোবাইল ফিরিয়ে দিয়ে বলল চোর! হতবাক ফোনের মালিক / প্রতীকী ছবি
'ভেবেছিলাম OnePlus 9 pro ফোন'- চুরি করেও মোবাইল ফিরিয়ে দিয়ে বলল চোর! হতবাক ফোনের মালিক / প্রতীকী ছবি

বর্তমানে স্মার্ট ফোন ছাড়া মানুষের দুনিয়া যেন অচল! এখন প্রতিটি মানুষের হাতেই স্মার্ট ফোন থাকবেই। দিনে দিনে মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা যেমন বাড়ছে, সেই সঙ্গে বাড়ছে ফোন চুরি যাওয়ার ঘটনাও। প্রায়ই কান পাতলে শোনা যায়, চুরি গিয়েছে মোবাইল। কিছু কিছু ক্ষেত্রে তা উদ্ধার হয়, আবার অধিকাংশ সময়ই সেগুলির আর হদিশই মেলে না। তবে সম্প্রতি এমনই এক ফোন চুরির ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে, যা দেখে তাজ্জব হয়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

ঘটনাটি ঘটে, বার অ্যান্ড বেঞ্চের সাংবাদিক দেবায়ন রায়ের সঙ্গে। সম্প্রতি ঘটনার বিবরণ দিয়ে নেটমাধ্যমে শেয়ার করেন তিনি। সেখানে তিনি লেখেন, নয়ডা সেক্টর ৫২ মেট্রো স্টেশনে দাঁড়িয়ে ফোন থেকে মেসেজ করছিলেন তিনি। আচমকাই মুখে মাস্ক পরা এক ব্যক্তি এসে তাঁর হাত থেকে ফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গেই চোরের পিছনে ধাওয়া করেন দেবায়ন। হঠাতই তিনি দেখেন ওই চোরই ফের তার দিকে এগিয়ে আসছে। যা দেখে থমকে দাঁড়িয়ে পড়েন দেবায়ন।

এরপর যা ঘটে তার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না দেবায়ন। চোরটি তাঁর কাছে এসে ফোনটি ফিরিয়ে দিয়ে বলে, “ভাই মুঝে লাগা OnePlus 9 Pro মডেল হ্যায়!” বলেই ফোনটি রেখে ছুটে পালিয়ে যায়৷ ঘটনা দেখে এক মুহূর্ত হতবাক হয়ে গেলেও পরমুহূর্তেই নিজেকে সামলে নেন দেবায়ন। এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন তা। একথাও স্বীকার করেন, “এমন চুরির কাণ্ড দেখে আমি তাজ্জব হয়ে গিয়েছি!”

ঘটনাটির কথা জানাজানি হতেই নেটদুনিয়ায় হাসির রোল ওঠে। কেউ কেউ এমন মন্তব্যও করেছেন যে এখন চোরেরাও বেশ স্ট্যাটাস মেনে চলে। তাই যে সে ফোন তারা হাতে নেয় না। খুব নামী দামী মোবাইল হলে তবেই তারা চুরির দিকে হাত বাড়ায়। প্রসঙ্গত, দেবায়ন বর্তমানে যে ফোনটি ব্যবহার করেন সেটি হল Samsung Galaxy S10 Plus। দেশে যার দাম আনুমানিক ৬৭ হাজার টাকা।