ফের অভিষেকের ত্রিপুরার সফরসূচীতে বদল! নেপথ্যে কারণ কি?

ফের অভিষেকের ত্রিপুরার সফরসূচীতে বদল! নেপথ্যে কারণ কি?
ফের অভিষেকের ত্রিপুরার সফরসূচীতে বদল! নেপথ্যে কারণ কি?

ফের সফরসূচিতে বদল। আগামীকাল শুক্রবারও ত্রিপুরা যাচ্ছেন না তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বরং সোমবার ত্রিপুরা যাওয়ার কথা রয়েছে তার। প্রসঙ্গত আজ বৃহস্পতিবার ত্রিপুরা যাওয়ার কথা ছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর। সেই সময় সূচি বদল হয়ে আগামীকাল শুক্রবার হয়েছিল। এর পর ফের একবার বদল হলো সেই সফরসূচী। সফরসূচি একাধিকবার বদল হওয়াতে প্রশ্ন উঠছে হঠাৎ কি কারণে ঘনঘন বদলায় দিন?

জানা গিয়েছে, বিশেষ কোন কারন নয়। শনি-রবিবার ত্রিপুরায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট সরকারের তরফে তাই সোমবার একেবারে ত্রিপুরা যাবেন তিনি। অন্যদিকে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত অসহযোগিতার অভিযোগ করেছে তৃণমূল। তাই সবদিক বিবেচনা করে সোমবার ত্রিপুরা যাওয়ার সফরসূচী ঠিক হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

দলীয় সূত্রে খবর, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের যাওয়া পর্যন্ত ত্রিপুরাতেই থাকবেন ব্রাত্য বসু, ডেরেক ও’ব্রায়েন সহ তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। এরপর সোমবার ত্রিপুরায় গিয়ে প্রথমে ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পূজা দেবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর দলীয় নেতাদের নিয়ে সাংগঠনিক বৈঠক রয়েছে তার। সেই বৈঠকে আইপ্যাক কর্মীদের উদ্ধারের পাশাপাশি আসন্ন লোকসভা নির্বাচন এবং বিধানসভা নির্বাচনে কিভাবে বিজেপির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক রণকৌশল আয়ত্ত করা যায় সে বিষয়েও প্রার্থী দিতে পারেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড।

এদিকে এদিন তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠক ত্রিপুরার সরকার অনুমতি না দেওয়ায় ফের একবার তুঙ্গে ওঠে তরজা। ডেরেক ও’ব্রায়েন কটাক্ষ করেছেন এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে। তিনি জানিয়েছেন, খেলা শুরু হয়ে গিয়েছে তাই ভয় পেয়েছে বিজেপি। যদিও এদিনই আইপ্যাকের সকলের আগাম জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত। তবে, আইপ্যাকের কর্মীদের মুক্তির দাবিতে প্রতিবাদ করতে গিয়ে ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গায় গ্রেফতার করা হয়েছে তৃণমূলের অনেক কর্মীকে।