ছেলেকে সামলে পুরোদস্তুর ‘ওয়ার্কিং উওম্যান’ মধুবনী! যোগ দিলেন পুরনো কাজে

ছেলেকে সামলে পুরোদস্তুর 'ওয়ার্কিং উওম্যান' মধুবনী! যোগ দিলেন পুরনো কাজে
ছেলেকে সামলে পুরোদস্তুর 'ওয়ার্কিং উওম্যান' মধুবনী! যোগ দিলেন পুরনো কাজে

টলিপাড়ার হিট জুটি ‘ওম-তোড়া’ ওরফে রাজা-মধুবনী গোস্বামীকে কে না চেনে! বাস্তবেও তাঁরা স্বামী-স্ত্রী। সদ্য মা হয়েছেন মধুবনী। গত এপ্রিলেই পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। নাম রেখেছেন কেশব। এতদিন ছেলেকে নিয়েই সময় কেটে গেলেও এবার ফের পুরোদস্তুর ‘ওয়ার্কিং উওম্যান’ হিসেবে কাজে যোগদান করলেন তিনি। তবে ছোট বা বড় পর্দায় নতুন কোনও সিরিয়াল বা সিনেমায় নয়, বরং পর্দার বাইরে।

বিষয়টা একটু খুলেই বলা যাক। গতবছরেই নিজের একটি পার্লার খুলেছিলেন অভিনেত্রী মধুবনী। পার্লারের নাম ‘মধুবনী’জ হেয়ার অ্যান্ড বিউটি সেলুন’। গতবছর থেকে চালু হলেও বিগত কয়েক মাস ধরে কোভিড বিধিনিষেধের কারণে বন্ধ ছিল তা। তবে সম্প্রতি রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছে, কোভিড বিধি মেনে ১ জুলাই থেকে খোলা যাবে পার্লার। তাই মধুবনী ফের পার্লার খুললেন। ছেলেকে সামলেই ফের যোগ দিলেন পুরনো কাজে।

ছেলেকে সামলে পুরোদস্তুর 'ওয়ার্কিং উওম্যান' মধুবনী! যোগ দিলেন পুরনো কাজে
ছেলেকে সামলে পুরোদস্তুর ‘ওয়ার্কিং উওম্যান’ মধুবনী! যোগ দিলেন পুরনো কাজে

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে অভিনেত্রী নিজেই জানালেন সেকথা। ইনস্টাগ্রামে মধুবনী লেখেন, “সরকারের গাইডলাইন মেনে প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকছে আমাদের পার্লার। আমাদের প্রত্যেক বিউটিশিয়ানেরই টিকাকরণ হয়ে গিয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য অবশ্যই বুকিং করতে আসতে হবে।” বুকিংয়ের জন্য ফোন নম্বরও দিয়েছেন অভিনেত্রী।

অন্যদিকে, স্বামী রাজা গোস্বামীও এখন পুরোদমে সিরিয়ালে ব্যস্ত। বর্তমানে ‘খড়কুটো’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন তিনি। মধুবনীর এখন পার্লার নিয়েই ব্যস্ত থাকতে চান। তবে ছেলে একটু বড় হলে পর্দার সামনে ফের আত্মপ্রকাশের ইচ্ছেপ্রকাশও করেছেন মধুবনী।