চীনের পর এবার বড়সড় চমক দিল বাংলাদেশ, ২০১৩ বেড এর করোনা হাসপাতাল তৈরি হল মাত্র ২১ দিনে

Image Source: Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ বাংলাদেশঃ বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াতে মাত্র ২১ দিনেই ২০১৩ বেডের হাসপাতাল বানাল বসুন্ধরা গ্রুপ ও দেশের স্বাস্থ্য অধিদফতর। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের একটি দল উদ্বোধনের একটি তারিখ চূড়ান্ত করেছেন, তার জন্যই প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাজ দ্রুত গতিতে চলছে। দেশে করনা সংক্রমনের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে বলেই এই অস্থায়ী হাসপাতালটি তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ। একটি আন্তর্জাতিক মানের কনভেনশন সিটি জুড়ে থাকা পরিকাঠামতেই স্থাপন করা হয়েছে বেড ও অন্যান্য আনুষাঙ্গিক যন্ত্রপাতি। এই সমগ্র বিষয়টির তত্বাবধানে আছে দেশের স্বাস্থ্য প্রকৌশল আধিদফতর।

“দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের চিকিৎসায় শুধু সরকারের উদ্যোগই নয়, দেশের প্রধান বেসরকারি শিল্প উদ্যোক্তাদেরও সামাজিক দায়বদ্ধতা রয়েছে”বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবাহান আনভির একথা জানিয়েছেন। তিনি এও জানিয়েছেন বাংলাদেশে যতদিন না পর্যন্ত এই করোনা বিপর্যয় শেষ হছে ততদিন পর্যন্ত এই কনভেনশন সিটিটি ব্যাবহার করা যাবে।

করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য এই অস্থায়ী হাসপাতালটিতে মোট ২০১৩ টি আইসোলেশান বেড আছে, ট্রেড সেন্টারে ১৪৮৮ টি বেড এবং তিনটি কনভেনশান হলে মোট ৫২৫ টি বেড এর ব্যাবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও ৪নং হলে ৭১ বেডের একটি আই.সি.ইউ এর ব্যাবস্থা থাকছে। বাংলাদেশ স্বাস্থ্য মন্ত্রালয় জানিয়েছে যে প্রায় সব কিছুই তৈরি হয়ে এসেছে, বারে বারে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে দেখে নেয়া হচ্ছে যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম। আই.সি.ইউ এর কিছু কাজ বাদে সব কিছুই প্রস্তুত, যেকোনো সময়ই রোগীর চিকিৎসা শুরু করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.