অবসর নিলেন কে শিবন, ISRO-র নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে এলেন এই বিখ্যাত গবেষক!

অবসর নিলেন কে শিবন, ISRO-র নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে এলেন এই বিখ্যাত গবেষক!
অবসর নিলেন কে শিবন, ISRO-র নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে এলেন এই বিখ্যাত গবেষক!

তাঁর নেতৃত্বে সফলতা পায়নি চন্দ্রযান-২ মিশন। তীরে এসেও ডুবেছিল তরী। সেই অপূর্ণতা নিয়েই অবশেষে ইসরো (ISRO)-কে বিদায় জানাতে চলেছেন চেয়ারম্যান কে শিবন। আগামীকাল অর্থাৎ শুক্রবারই শেষ হচ্ছে তাঁর কার্যকালের মেয়াদ। তাঁর পরিবর্তে ইসরোর নতুন প্রধান, স্পেস কমিশনের চেয়ারম্যান এবং স্পেস সেক্রেটারি পদে আনা হল রকেট সায়েন্সের বিখ্যাত গবেষক এস সোমনাথকে।

জানা গিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বর মাসেই চাকরির মেয়াদ শেষ হয় কে শিবনের। তবে ২০২২-এর ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত সেই মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। ফলে শুক্রবারই শেষ হচ্ছে সেই বর্ধিত মেয়াদ। এদিনই ইসরোকে বিদায় জানাতে চলেছেন শিবন। পরিবর্তে নতুন প্রধানের দায়িত্ব পেলেন সোমনাথ। আগামী ৩ বছর তিনি এই দায়িত্ব সামলাবেন বলে খবর।

দেশের শীর্ষস্থানীয় গবেষকদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন সোমনাথ। বিক্রম সারাভাই স্পেস সেন্টারের ডিরেক্টরের পদে এতদিন আসীন ছিলেন তিনি। সেখানে তাঁর সাফল্য দেখেই ইসরোর প্রধানের দায়িত্ব সামলানোর কাজ তাঁর হাতে তুলে দেয় কেন্দ্র। আর দায়িত্ব পেয়েই নতুন প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে জোর দিয়েছেন সোমনাথ। পাশাপাশি, আগামী দিনে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে হাত মিলিয়েও কাজ করবে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা, এমন ইঙ্গিতও দিয়েছেন নতুন চেয়ারম্যান।

প্রসঙ্গত, লঞ্চ ভেহিকেল ডিজাইন, সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং, স্ট্রাকচালার ডিজাইন, স্ট্রাকচারাল ডাইনামিকস, পাইরথেনিকস, মেকানিজম ডিজাইনিংয়ের মতো বেশ কিছু বিষয়ের বিশেষজ্ঞ সোমনাথ। পিএসএলভি নিয়ে গবেষণার জন্য বিশেষ খ্যাতিও অর্জন করেছেন তিনি। এমনকি চন্দ্রযান-২ মিশনের রকেট উৎক্ষেপণের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, চন্দ্রযান-২-এর ল্যান্ডার বিক্রমের অবতরণের ব্যর্থতার পর ফের নতুন করে চন্দ্রাভিযানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। সেই প্রকল্প পর্যবেক্ষণের দায়িত্বও এখন সোমনাথের কাঁধে। এছাড়াও আগামী ৩ বছরে আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের কাজ হওয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মঙ্গলযান প্রকল্প। সেগুলির দায়িত্বও নেবেন সোমনাথই।