অবশেষে জয় তৃণমূলের! পেট্রল পাম্প থেকে মোদীর ছবি সরানোর নির্দেশ

অবশেষে জয় তৃণমূলের! পেট্রল পাম্প থেকে মোদীর ছবি সরানোর নির্দেশ
অবশেষে জয় তৃণমূলের! পেট্রল পাম্প থেকে মোদীর ছবি সরানোর নির্দেশ / ছবি সৌজন্যে- Screenshot Facebook Live Video By Narendra Modi Official Facebook Page

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ অবশেষে রাজ্যের শাসকদলের দাবিকে মান্যতা দিয়ে, প্রধানমন্ত্রীর ছবিকে পেট্রল পাম্প থেকে সরানোর নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন। আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই রাজ্যের সমস্ত পেট্রল পাম্প থেকেই সরানো হবে নরেন্দ্র মোদীর ছবি। ভোটের দিন ঘোষণা হওয়ার পরে, ওই ছবি নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করছে বলে চিঠি দিয়ে কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল রাজ্যের শাসকদল। তারপরেই এই ছবি সরানোর নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রীর ছবি ব্যবহার করে, পেট্রল পাম্পে বিজ্ঞাপন আদর্শ আচরণবিধি বিরোধী। কারণ, অনেকেই দাবি করেছেন যে, প্রধানমন্ত্রী শুধুমাত্র লোকসভা নয়, বিভিন্ন রাজ্যের নির্বাচনের প্রচারের অংশও। তাই হোর্ডিং থেকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ সরানো প্রয়োজন অবিলম্বে। এদিকে রাজনৈতিকমহলের মতে, নির্বাচন কমিশনের এই নির্দেশে খানিকটা অস্বস্তিতে রাজ্যের বিজেপি।

অবার অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের টিকাকরণ কর্মসূচির ডিজিটাল শংসাপত্রে এখনও ব্যবহৃত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি। এক্ষেত্রেও আদর্শ নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূলের সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। মঙ্গলবার তিনি এ বিষয়ে একটি টুইটও করেন। সেই টুইটে তিনি লেখেন যে, ভোটের দিন ঘোষণা হয়ে গেছে, এরপরেও প্রধানমন্ত্রীর ছবি কোভিড-১৯ শংসাপত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে। এই বিষয়ে তিনি নির্বাচন কমিশনে নালিশও জানান।

উল্লেখ্য, পেট্রল পাম্পে প্রধানমন্ত্রীর ছবি টাঙানোকে কেন্দ্র করে প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলেও। সে প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন যে, পেট্রল পাম্প কোনও সরকারি জায়গা নয়, তাই সেখানে প্রধানমন্ত্রীর ছবি থাকতেই পারে। তিনি এও বলেন যে, সেটা সেটা আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘনের আওতায় পড়ে না। কিন্তু শেষপর্যন্ত কমিশনের নির্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ছবি সরাতেই হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২৬ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও কেরালা, তামিলনাড়ু, অসম ও পুদুচেরিতে রয়েছে নির্বাচন। এবার বাংলায় বিধানসভা ভোট ৮ দফায়। ফলপ্রকাশ ২ মে। কমিশন জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হবে ২৭ মার্চ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.