করোনা আক্রান্ত হয়ে সদ্য সেরে উঠেছেন? জেনে নিন কতদিন পর নিতে পারবেন ভ্যাকসিন!

করোনা আক্রান্ত হয়ে সদ্য সেরে উঠেছেন? জেনে নিন কতদিন পর নিতে পারবেন ভ্যাকসিন! / প্রতীকী ছবি
করোনা আক্রান্ত হয়ে সদ্য সেরে উঠেছেন? জেনে নিন কতদিন পর নিতে পারবেন ভ্যাকসিন! / প্রতীকী ছবি

আপনি কি সদ্য করোনা থেকে সেরে উঠেছেন? ভ্যাকসিন নিতে চান? তাহলে জেনে নিন ভ্যাকসিন নেওয়ার নতুন সময়সীমা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বিশেষজ্ঞ কমিটি পরামর্শ দিয়েছেন, এবার থেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ওঠার ৬ থেকে ন’মাসের পর ভ্যাকসিন নিতে হবে। এই নিয়ে তৃতীয়বার ভ্যাকসিন নেওয়ার সময়সীমার পরিবর্তন করার পরামর্শ দেওয়া হল। যার জেরে নতুন করে বিতর্কও দানা বেঁধেছে।

সম্প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বিশেষজ্ঞ কমিটি ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসরি গ্রুপ অন ইমিউনাইজেশন বা এনটিএজিআই-এর পরামর্শ দিয়েছেন, করোনা থেকে মুক্তি পাওয়ার ৬ থেকে ৯ মাসের মধ্যে ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিতে পারবেন। এর আগে বলা হয়েছিল করোনামুক্তির ৩ মাসের মধ্যে টিকাকরণ করতে পারবেন। তারপর সেই সময়সীমা বাড়িয়ে বলা হল, করোনা থেকে সেরে ওঠার ৬ মাসের মধ্যে নিতে পারবেন। এবার তৃতীয় বারের জন্য সময়সীমা বাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হল৷ যা এবার বাড়িয়ে করা হল ৬ থেকে ৯ মাস।

এসবের মধ্যেই তাই নতুন করে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এর আগে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়ার ক্ষেত্রেও সময়সীমা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছিল এনটিএজিআই। সেই প্রস্তাব গ্রহণও করেছিল কেন্দ্র। এবার করোনা থেকে সেরে ওঠার পর টিকাকরণ নিয়েও একইরকম ভাবে সময়সীমা বাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হল। ফলে ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা কী রকম থাকবে তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।

প্রসঙ্গত, এমনিতেই দেশ জুড়ে চলছে ভ্যাকসিনের আকাল। বহু মানুষ ভ্যাকসিন পাননি। অনেকের আবার প্রথম ডোজ নেওয়া থাকলেও দ্বিতীয় ডোজ পাচ্ছেন না কোথাও। এই অবস্থায় তৃতীয়বারের জন্য ভ্যাকসিন নেওয়ার সময়সীমা বাড়ানোর পরামর্শ কি ভ্যাকসিনের ঘাটতি ঢাকতেই? প্রশ্ন তুলেছেন দেশের মানুষ। যা ঘিরে সারা দেশ জুড়েই এখন ভ্যাকসিন নিয়ে টানাপোড়েন জারি।