করোনা সংক্রমণ কমতেই, ফের দিঘায় বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়! সামান্য স্বস্তিতে ব্যবসায়ীরা

করোনা সংক্রমণ কমতেই, ফের দিঘায় বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়! সামান্য স্বস্তিতে ব্যবসায়ীরা
করোনা সংক্রমণ কমতেই, ফের দিঘায় বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়! সামান্য স্বস্তিতে ব্যবসায়ীরা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাব এখন অনেকটাই কাটিয়ে উঠছে দেশ। দেশব্যাপী এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে বাংলার করোনা সংক্রমণ। ক্রমশ স্বাভাবিক জনজীবনে ফিরছে দেশ। বাংলাও এর ব্যতিক্রম নয়। দেশের মধ্যে অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বাংলায় করোনার সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ক্রমশ সুস্থতার পথে এগোচ্ছে বাংলা। ক্রমশ বাড়ছে সুস্থতার হার। মৃত্যুর সংখ্যাও নিম্নমুখী।

এই পরিস্থিতিতে ফের দিঘায় বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়। বহু পর্যটকই সমুদ্রস্নানে মেতেছেন। সংক্রমণ কমতেই, ফের পর্যটকশূন্য দিঘার সমুদ্র সৈকত ভরে উঠতে শুরু করেছে পর্যটকে। কাজেই স্বাভাবিকভাবেই হাসি ফুটেছে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মুখে। যদিও এখনও রাজ্যে জারি রয়েছে কড়া বিধিনিষেধ। ১৫ জুলাই পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে। তবে একাধিক ক্ষেত্রে মিলেছে ছাড়ও।

আজ রবিবার দিঘায় বহু পর্যটক আসেন, তাঁরা মাতেন সমুদ্রস্নানে। করোনা থেকে ইয়াস ফের লকডাউন এই সবের আক্রমণে বেশ কিছু সময় ধরেই পর্যটক শূন্য দিঘা। আর সেই কারণেই পর্যটন ব্যবসা বা পর্যটন শিল্পের সঙ্গে পরোক্ষ বা প্রত্যক্ষভাবে যাঁদের রুটিরুজি জড়িত, সেই সকল ব্যবসায়ীরা মারাত্মক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। তাঁদের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। সংসার চালাতে পারছিলেন না। কিন্তু এবার তারাও দোকান খুলতে শুরু করতে পেরেছেন। পর্যটকের আগমনে তাঁদের মুখে ফের হাসি ফুটেছে।

তবে, এখন ধীরে ধীরে পরিস্থিতি বদলাচ্ছে। ক্রমশ পর্যটকের ভিড় হচ্ছে দিঘায়। এই সমুদ্রশহর ক্রমশ প্রাণচঞ্চল হয়ে উঠছে পর্যটকের আনাগোনা শুরু হতেই। রাজ্য সরকার বাস-সহ অন্যান্য যান চলাচলে ছাড় দিতেই, পর্যটন শহর দিঘায় এসে পরিবার, বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে দু’একদিন থেকে যাওয়ার সুযোগ হাতছাড়া করছেন না অনেকেই।

তবে, স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বহু পর্যটকই মাস্ক পরছেন না বা স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন না। প্রশাসনের তরফে সতর্কতামূলক নজরদারিও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।