বর্ধমান বোমা বিস্ফোরণ কাণ্ডে রাজ্যকেই দুষলো বিরোধীরা

বর্ধমান বোমা বিস্ফোরণ কাণ্ডে রাজ্যকেই দুষলো বিরোধীরা
বর্ধমান বোমা বিস্ফোরণ কাণ্ডে রাজ্যকেই দুষলো বিরোধীরা

বর্ধমানের বোমা ফেটে শিশুর মৃত্যু কে ঘিরে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। কোথায় এই ঘটনাকে নাটকীয় বলেই মন্তব্য করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। তবে প্রত্যক্ষ ভাবে রাজ্যের শাসক দলকে এই ঘটনার জন্য দায়ী করেছে গেরুয়া শিবির।

ভোটের মুখে বর্ধমানের বোমা ফেটে মৃত্যু হয় এক শিশুর। অন্যদিকে বিস্ফোরণে জখম হয়েছে আরও এক শিশু। যার অবস্থা আশঙ্কাজনক। বল ভেবে খেলতে গিয়ে বোমা ফেটে মৃত্যু হয় ওই শিশুর।

এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেসের বহু অফিস বোম বাঁধার কারখানা হয়ে গেছে। ‘ খেলা হবে’ একটা ভালো রকম হুমকি। একটা দল এই স্লোগানকে ব্যবহার করেছে এই ধরনের কাজ করতে পারে সেটা তৃণমূলকে না দেখলে বোঝা যায় না”।

অন্যদিকে একই ভাবে আক্রমণ জানিয়েছেন ডোমজুড়ের বিজেপি প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি প্রশ্ন তুলে বলেন, “এই দায় কে নেবে?”তার কথায়, “এটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ব্যর্থতা। আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিয়ে কখনই শিশু মৃত্যুর দায় এড়ানো যায়না।” রাজিব বাবুর আরও অভিযোগ, “ভোট লুট করার জন্য গণতন্ত্রের গলা টিপে মারার জন্য এ ধরনের পন্থা অবলম্বন করছে তৃণমূল”।

এই একই বিষয়ে সরব হয়ে এদিন বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “খুব দুঃখজনক ঘটনা এবং নিন্দনীয়। খুবই লজ্জার। মানুষ এখন বিপন্নতার মধ্যে ভুগছে। ক্ষমতা জাহির করা হচ্ছে। বাংলার বিবেক কোথায়। এই বাংলা কেউ চায়নি”।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.