ক্যান্সার আক্রান্ত অভিনেত্রী! মেয়ের পাশে দাঁড়াতে বাবা নিলেন এই সিদ্ধান্ত! ছবি পোস্ট ঐন্দ্রিলার

ক্যান্সার আক্রান্ত অভিনেত্রী! মেয়ের পাশে দাঁড়াতে বাবা নিলেন এই সিদ্ধান্ত! ছবি পোস্ট ঐন্দ্রিলার / ছবি সৌজন্যেঃ instagrammed By @aindrila.sharma
ক্যান্সার আক্রান্ত অভিনেত্রী! মেয়ের পাশে দাঁড়াতে বাবা নিলেন এই সিদ্ধান্ত! ছবি পোস্ট ঐন্দ্রিলার / ছবি সৌজন্যেঃ instagrammed By @aindrila.sharma

‘জিয়ন কাঠি’ খ্যাত টলি অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলার শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ রোগ ক্যান্সার। জানা গিয়েছে, ৬ বছর আগেই শিরদাঁড়ার ক্যানসারে আক্রান্ত হন অভিনেত্রী। যা এ দেশে বেশ বিরল। ধীরে ধীরে সুস্থও হয়ে উঠছিলেন তিনি। তবে ফের একবার মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে রোগের বীজ। ফলে দিল্লির এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। সেখানে তাঁকে কেমো দেওয়া হয়। তারপরই সাময়িক ভাবে মাথার থেকে কেটে ফেলতে হয়েছিল সব চুল৷ নেড়া মাথায় ছবিও পোস্ট করেছিলেন অভিনেত্রী। এবার সেই একই পথে হাঁটলেন তাঁর বাবাও।

সম্প্রতি, নিজের ক্যান্সার আক্রান্ত মেয়ের পাশে দাঁড়াতে মাথার সব চুল কেটে ফেললেন ঐন্দ্রিলার বাবা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি শেয়ার করলেন অভিনেত্রী নিজেই। ইনস্টাগ্রামে নিজের বাবার সঙ্গে তোলা সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বাবা-মেয়ে দুজনেরই মাথা নেড়া। আর বাবা শক্ত করে জড়িয়ে রেখেছেন মেয়েকে। ছবিটির ক্যাপশনে ঐন্দ্রিলা লেখেন, ‘বাবা কখনও মুখে বলে না ভালবাসি, নীরবে প্রাণ দিয়ে ভালবেসে যায়। কাল হঠাৎ সব চুল কেটে দেয়। বাবার ভালবাসা হয়তো এরকমই হয়। আমি সত্যিই ধন্য।’

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই দিল্লি থেকে দ্বিতীয়বার কেমোথেরাপি নেওয়ার পর নিজের মাথার সব চুল কেটে ফেলতে হয়েছিল ঐন্দ্রিলাকে। সেসময় তাঁর পাশে দাঁড়াতে অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ বন্ধু পারমিতা সেনগুপ্তও মাথার সব চুল কামিয়ে নেড়া হয়েছিলেন। এবার অভিনেত্রীর বাবাও একই কাজে সামিল হলেন। সকলের এই ভালোবাসা পেয়ে আগামীর জন্য আরও জোর পাচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

এছাড়াও, জীবনের এই কঠিন সময়ে ঐন্দ্রিলা পাশে পেয়েছেন পর্দার ‘বামা’ তথা বন্ধু অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরীকে। দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন সব্যসাচীই ছিলেন অভিনেত্রীর ভরসা। পাশাপাশি অভিনেত্রীকে সাহস যোগাচ্ছে তাঁর অসংখ্য অনুরাগীর আশীর্বাদ আর ভালোবাসা। সেগুলিকে সম্বল করেই লড়াই চালিয়ে যেতে চান ঐন্দ্রিলা। চান আবার সুস্থ হয়ে ফিরতে। তিনি যে এভাবেই ফিরবেন, সে নিয়েও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তিনি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.