বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

তালিবানরা কাবুলের দখল নিতেই! ১২৯ জন যাত্রী নিয়ে রবিবারই দিল্লি এসে পৌঁছাল এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান

১০:০৩ এএম, আগস্ট ১৬, ২০২১

তালিবানরা কাবুলের দখল নিতেই! ১২৯ জন যাত্রী নিয়ে রবিবারই দিল্লি এসে পৌঁছাল এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ইতিমধ্যেই আফগানিস্তান ছেড়ে চলে গিয়েছেন দেশের প্রেসিডেন্ট আসরফ ঘানি। সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের দখল নিয়েছে তালিবান। এরই মধ্যে সন্ধেয় কাবুল বিমানবন্দর থেকে ১২৯ জন যাত্রী নিয়ে দিল্লিতে নামল এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ বিমান।

উল্লেখ্য, দিল্লি-কাবুলের মধ্যে সপ্তাহে তিনবার এই বিমান চলাচল করে। তবে, এখনই আগামী দিনের এই বিমান চলাচল বাতিল ঘোষণা করা না হলেও, এর কতদিন ওই রুটে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান চলাচল করবে, সেটাই এখন দেখার। রবিবার আফগানিস্তানের স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬.০৬ মিনিটে কাবুল বিমানবন্দর থেকে যাত্রা শুরু করে রাত ৮ টা নাগাদ দিল্লি বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান।

তালিবানরা কাবুলের দখল নিতেই এই মুহূর্তে সবকিছুই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সেই তালিকায় বিমান চলাচলও রয়েছে। উল্লেখ্য, ভারত এবং আফগানিস্তানের মধ্যে হওয়া ‘এয়ার বাবল’- এর চুক্তির কারণেই দু’দেশের মধ্যে করোনা অতিমারি পরিস্থিতিতেও বিমান চলাচল জারি রয়েছে। আফগানিস্তানের ‘কাম এয়ার’ এবং ভারতের ‘এয়ার ইন্ডিয়া’ দিল্লি-কাবুল রুটে বিমান চালিয়ে থাকে। কিন্তু তালিবানরা আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পর, পরিস্থিতি এখন আর আগের মতো নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। তাই এই রুটে শীঘ্রই বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অন্যদিকে, তালিবানরা কাবুলের দখল নেওয়ার পর থেকে সেখান থেকে আমেরিকা-সহ বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের কর্মী ও নাগরিকদের সরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। যদিও, ভারত এখনই তেমন কিছু করছে না। সূত্রের খবর, আফগানিস্তানের দ্রুত পরিবর্তনশীল পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে ভারত সরকার। তবে, এখনই কাবুলে থাকা ভারতীয় দূতাবাসের কর্মী বা নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়নি ভারত সরকার।

রবিবার প্রাণে বেঁচে দিল্লিতে এসে কান্নায়, আতঙ্কে ভেঙে পড়লেন এক আফগান মহিলা। সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘বিশ্বাস করতে পারছি না, দুনিয়ার সব দেশ আফগানিস্তান ছেড়ে চলে যাবে। তালিবান আমাদের বন্ধুদের মেরে ফেলবে। মেয়েদের কোনও অধিকারই আর থাকবে না।’

https://twitter.com/MdFasahathullah/status/1427074045338476549

যারাই এদিন ফিরেছেন কাবুল থেকে, তাঁরাই তাঁদের গভীর আশঙ্কার কথা শোনালেন। আবদুল্লা মাসুদি নামে এক বিবিএ পড়ুয়া সংবাদসংস্থাকে বলেন, ‘তালিবান কাবুলে ঢুকছে শুনেই মানুষজন ব্যাহ্ক-এ ভিড় করছে। কোনও হামলার ঘটনা আমার চোখে পড়েনি কিন্তু হামলা হবে না এটা বলা যাচ্ছে না। আগে থেকেই এই এই বিমানের টিকিট কাটা ছিল। আমার পরিবার এখনও কাবুলেই আছে। বহু লোক আতঙ্কে কাবুল ছেড়ে চলে গিয়েছে।’

https://twitter.com/ANI/status/1426955151005282314