বিমানে চড়তে হলে অতি অবশ্যই মানতে হবে এই নিয়মগুলি! না হলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ

বিমানে চড়তে হলে অতি অবশ্যই মানতে হবে এই নিয়মগুলি! না হলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ
বিমানে চড়তে হলে অতি অবশ্যই মানতে হবে এই নিয়মগুলি! না হলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ ফের দেশজুড়ে শুরু হয়েছে করোনার বাড়বাড়ন্ত। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বারবার মানুষকে সচেতন হওয়ার এবং করোনা বিধিনিষেধ মেনে চলার কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু কোনও কিছুতেই পরিস্থিতির পরিবর্তন হচ্ছে না। পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হতেই, করোনাবিধি মানছেন না অধিকাংশ মানুষই।

এই পরিস্থিতিতে দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এর মধ্যেই দেশব্যাপী শুরু হয়েছে দ্বিতীয় পর্যায়ের করোনা টিকাকরণ প্রক্রিয়া। মহারাষ্ট্র, পাঞ্জাব-সহ একাধিক রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক চেহারা নিয়েছে। মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপের দিকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু অংশে সম্পূর্ণ এবং কোথাও আবার আংশিক লকডাউন জারি করা হয়েছে। নাগপুরে লকডাউন ঘোষণা হয়েছে, পুনেতে আংশিক লকডাউন। মুম্বই শহরজুড়ে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এই আবহে যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা নিয়ন্ত্রক ডিজিসিএ কঠোর পদক্ষেপ নিতে চলেছে। বিমানে ওঠার আগে ও পরে যাত্রীদের বেশ কিছু নিয়ম অতি অবশ্যই মানতে হবে বলে কড়া সুরে জানিয়েছে যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। ডিজিসিএ-এ ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে যে, প্রত্যেক যাত্রীকেই করোনাবিধি মেনে চলতে হবে। সঠিকভাবে মাস্ক পড়তে হবে। মাস্ক নাকের নীচে নামানো যাবে না। শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। মাস্ক ছাড়া কেউ যাতে বিমানবন্দর চত্বরে প্রবেশ করতে না পারেন, সে বিষয়ে কড়া নজরদারি করতে বলা হয়েছে কর্তব্যরত পুলিশকর্মীদের।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, এখন অনেক যাত্রীই করোনা নিয়মবিধি মেনে চলছেন না। সতর্কতা অবলম্বন করছেন না। অনেক যাত্রীই আবার শারীরিক দূরত্বও বজায় রাখছেন না। কেউ কেউ তো আবার বিমানে উঠেই মাস্ক খুলে ফেলছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে এও পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে যে, কোনও যাত্রী নিয়ম না মানলে, তাঁকে সতর্কতাবাণী শুনিয়ে তুলে দিতে হবে সিকিউরিটির হাতে। বারবার অনুরোধের পরেও যদি কোনও যাত্রী করোনাবিধি মানতে অস্বীকার করেন বা বিমানে মাস্ক না পরেন, তাঁর বা তাঁদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে কড়া ব্যবস্থা। তাঁকে বিমান ছাড়ার আগে প্রয়োজনে নামিয়েও দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ডিজিসিএ-এর জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.