চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ হায়দ্রাবাদের হাসপাতালের বিরুদ্ধে! করোনা রোগীর মৃত্যুর আগের ভিডিও ভাইরাল

Image Source: Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ হায়দ্রাবাদঃ দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে একাধিকবার অভিযোগ উঠেছে যে, করোনার কারণ দেখিয়ে রোগীদের ভর্তি নেওয়া হচ্ছে না। অনেক রোগীই চিকিৎসা পাচ্ছেন না। এবার হায়দ্রাবাদের এক হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলো করোনা রোগীর চিকিৎসায় গাফিলতির।

হায়দ্রাবাদের এক সরকারি হৃদরোগের হাসপাতালে ভর্তি করোনা আক্রান্ত এক যুবকের মৃত্যুর আগে বাবাকে পাঠানো ভিডিও বার্তা প্রকাশ্যে এসেছে। আর সেই ভিডিও বার্তাই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ভিডিওটিতে ৩৪ বছরের ওই করোনা আক্রান্ত যুবক তার বাবার উদ্দেশ্যে বলছেন, “বাবা আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছিনা। খুব কষ্ট হচ্ছে। ওরা ভেন্টিলেশন খুলে রেখেছে। বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও ৩ ঘন্টা অক্সিজেন দেয়নি। আমার দম বন্ধ হয়ে আসছে। বিদায় বাবা! বিদায় সকলকে!”

এরপরেই মারা গিয়েছেন ওই যুবক। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, চিকিৎসায় গাফিলতির জন্যই মারা গিয়েছেন তাদের ছেলে। পরিবার সুত্রে খবর, ওই যুবককে অসুস্থ অবস্থায় তার বাবা চিকিৎসার জন্য সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে প্রায় ১০টি হাসপাতাল ঘুরেছেন হায়দ্রাবাদে। কিন্তু কোনও হাসপাতাল তাকে ভর্তি নিতে রাজি হয়নি। শেষ পর্যন্ত একটি সরকারি হৃদরোগের হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। ওই যুবকের মৃত্যুর পরই তার বাবারও করোনার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শোকস্তব্ধ গোটা পরিবার।

আরও পড়ুনঃ  উল্টো রথের আবহেই পুরীতে করোনার থাবা

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.