রাজ্যে অগ্রিম পাঠানো টীকার কি সদ্ব্যবহার হয়েছে? মমতাকে প্রশ্ন বিজেপির

রাজ্যে অগ্রিম পাঠানো টীকার কি সদ্ব্যবহার হয়েছে? মমতাকে প্রশ্ন বিজেপির
Image Source: Facebook Post By @amitmalviyabjp & Mamata Banerjee File Image

ভোটের আগে রাজ্যের সবাইকে বিনামূল্যে টিকা দিতে চায় তৃণমূল সরকার। তাই এবার সরাসরি উৎপাদক সংস্থা থেকে টিকা কিনতে চায় রাজ্য। এই আবেদন জানিয়ে বুধবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর প্রেক্ষিতে বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতা অমিত মালব্য প্রশ্ন তুলেছেন।

রাজ্যে ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ভোটকর্মীদের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই নির্দেশ মিনে টিকাকরণ প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে রাজ্যে। কিন্তু ভোট দিতে যাওয়া ভোটদাতাদের কী হবে? টিকা না দিয়ে ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে পাঠানো উচিৎ হবে না। ভোটের আগে সকলকে বিনামূল্যে টিকা দিতে চায় রাজ্য। তাই উৎপাদক সংস্থার কাছ থেকে সরাসরি টিকা কিনতে চায় রাজ্য সরকার।

অমিত মালব্য লিখেছেন, “পিসি প্রধানমন্ত্রীকে আরও টিকা পাঠানোর আবেদন করেছেন। কিন্তু যা পাঠানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গকে, তার সদ্ব্যবহার হয়েছে কি? ২২ লক্ষ ৫১ হাজার ৮০০ কোভিশিল্ড এবং ৪ লক্ষ ৯৭ হাজার ৭৬০ কোভ্যাক্সিনের মধ্যে ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ২৯০ কোভিশিল্ড এবং ৬৩ হাজার ৩৮০ অর্থাৎ ৩৬.৭ শতাংশ এবং ১২.৭ শতাংশ কাজে লেগেছে।“

অমিত মালব্য লিখেছেন, “আরও ৭ লক্ষ ৩৮ হাজার কোভিশিল্ড এবং ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার ৮৪০ কোভ্যাক্সিন এ রাজ্যে আসছে। লজ্জাকর রাজনীতি।”

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.