উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যোগী আদিত্যনাথই একমাত্র পছন্দ! দু’দিনের সফরে যোগী রাজ্যে শাহ

উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যোগী আদিত্যনাথই একমাত্র পছন্দ! দু’দিনের সফরে যোগী রাজ্যে শাহ
উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যোগী আদিত্যনাথই একমাত্র পছন্দ! দু’দিনের সফরে যোগী রাজ্যে শাহ

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আর মাত্র কয়েক মাসের প্রতিক্ষা। তারপরেই রয়েছে উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে বিজেপি। এই নির্বাচনকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবেই দেখছে বিজেপি। এই আসন্ন নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই এবার দুদিনের সফরে উত্তরপ্রদেশে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সফরে তিনি সেই রাজ্যের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে দলের প্রচার পরিকল্পনা নিয়েই আলোচনায় বসবেন।

এদিকে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বাড়বাড়ন্তের সময় গঙ্গায় দেহ ভাসানোকে কেন্দ্র করে কিছুটা হলেও চাপে পড়তে হয়েছে যোগী আদিত্যনাথকে। এই বিষয়কে কেন্দ্র করেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সামনেই নির্বাচন। আর এই নির্বাচনে বিজেপির ভালো ফল করা অত্যন্ত জরুরি। আর তাই সব ভুলে নির্বাচনের কথা ভেবেই আবার এক হয়ে নির্বাচনী লড়াই লড়তে চাইছে বিজেপি। আর এবারেও মুখ্যমন্ত্রীর দৌড়ে যোগী আদিত্যনাথকেই এগিয়ে রাখছেন মোদী-শাহ জুটি। উত্তরপ্রদেশে নির্বাচনের আর মাত্র ১০০ দিন বাকি। ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে প্রচার শুরু হয়ে গিয়েছে। এবার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতেই সে রাজ্যে দুই দিনের সফরে যাচ্ছেন অমিত শাহ।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার বারাণসীর দীনদয়াল হস্তকলা সংকুলে দলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছেন অমিত শাহ। মূলত নির্বাচনী পরিকল্পনা ও দলের প্রস্তুতিই খতিয়ে দেখবেন তিনি। বারাণসীর সমস্ত মন্ত্রীদের এই বৈঠকে উপস্থিত থাকার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা উত্তর প্রদেশের নির্বাচনী পর্যবেক্ষক ধর্মেন্দ্র প্রধান এবং বিজেপি নেতা সুনীল বনসল ও স্বতন্ত্র দেব সিংও উক্ত বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গিয়েছে। টানা চার ঘণ্টা ধরে এই বৈঠক চলবে বলে সূত্রের খবর।

অন্যদিকে, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ উত্তরপ্রদেশের আসন্ন নির্বাচনে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী বলেই জানিয়েছিলেন। তাঁর দাবি ছিল, ২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচনেও দারুণ ফল করবে বিজেপি এবং ৩০০-রও বেশি আসনে জয়লাভ করবে। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে যে যোগী আদিত্যনাথই তাঁদের প্রথম এবং একমাত্র পছন্দ, সে কথাও স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যদি ২০২৪ সালে আপনারা প্রধানমন্ত্রী পদে পুনরায় নরেন্দ্র মোদীকেই বসাতে চান, তবে ২০২২ সালে যোগী আদিত্যনাথকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বেছে নিন। আমরা একসঙ্গে মিলে উত্তরপ্রদেশকে এক নম্বর রাজ্যে পরিণত করব। উত্তর প্রদেশের সমর্থন ছাড়া কেন্দ্রে সরকার থাকতে পারে না। ২০১৪ ও ২০১৯ সালে নরেন্দ্র মোদীর সরকারকে বেছে নেওয়ার কৃতিত্বও উত্তর প্রদেশের মানুষদেরই।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ৪০৩ আসনের বিধানসভা নির্বাচনে ২০১৭ সালে বিজেপি ৩১২টি আসনে জয়লাভ করেছিল। এবার কমপক্ষে ৩৫০-রও বেশি আসন পাবে বিজেপি, এমনটাই বারবার জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

দলীয় সূত্রে খবর, কাশীর মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি দু’দিনের সফরের মধ্যেই উত্তর প্রদেশের পূর্বভাগেও সফরে যাবেন অমিত শাহ। বারাণসী ও গোরক্ষপুর ছাড়াও তিনি আজ়মগঢ়ে যাবেন, যা সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়ম সিং যাদবের গঢ় হিসাবে পরিচিত।  এছাড়াও তিনি সর্বভারতীয় ভাষা সম্মেলনেও যোগদান করবেন বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি শিব হর্ষ কলেজে তাঁর একটি জনসভার আয়োজন করা হবে বলেও খবর।