নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর হামলার অভিযোগ তুলে, রাণাঘাটে পুড়ল অমিত শাহর কুশপুতুল

নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর হামলার অভিযোগ তুলে, রাণাঘাটে পুড়ল অমিত শাহর কুশপুতুল
নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর হামলার অভিযোগ তুলে, রাণাঘাটে পুড়ল অমিত শাহর কুশপুতুল/ নিজস্ব ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি নদীয়াঃ বুধবার নন্দীগ্রাম আসনের জন্য হলদিয়ায় মনোনয়ন জমা দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর, নন্দীগ্রামে ভোট প্রচারে গিয়ে, আহত হন তিনি। কালই তাঁকে তড়িঘড়ি গ্রিন করিডর করে এনে ভর্তি করা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। পায়ে, ঘাড়-সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত রয়েছে তাঁর। হাসপাতাল সূত্রের খবর, আগামী দিন দুই-তিন তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে, আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির উপরে হামলার অভিযোগ তুলে, প্রতিবাদ জানাতে রাণাঘাটের শহরের রাজপথে নদীয়া জেলা এবং কৃষ্ণনগর তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি প্রতিবাদ মিছিল করা হয়। এই মিছিলে অমিত শাহর কুশপুতুল দাহ করা হয়।

অন্যদিকে কৃষ্ণনগরে রাস্তার উপর টায়ার জ্বলিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূলের দলীয় কর্মী সমর্থকরা। নদীয়া জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এ ধরনের ছোট-বড় বিক্ষোভের হয়েছে! এমনিতেই আজ মহা শিবরাত্রির পুজো হওয়ার কারণে ভিড় উপচে পড়ছে পথে-ঘাটে, তার উপর ধরনের বিক্ষোভের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে নাজেহাল অবস্থা জেলা পুলিশ প্রশাসনের।

অন্যদিকে, আজই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এসএসকেএম-এর হাসপাতালের বেডে শুয়েই, দলীয় কর্মী এবং সমর্থকদের উদ্দেশে এক ভিডিও বার্তা প্রেরণ করেছেন। তাতে তিনি অনুরোধ করেছেন সকলকে সংযত থাকতে, শান্ত থাকতে এবং ভালো থাকতে। এমন কিছু না করতে, যাতে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হয়। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে, আগামী ২-৩ দিনের মধ্যেই তিনি কাজে ফিরবেন, পায়ের সমস্যা থাকলেও, তিনি ম্যানেজ করে নেবেন। কোনও মিটিং নষ্ট হবে না। তিনি সকলের কাছে সহযোগিতা আশা করেছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলায় আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে, ভোটের আবহে নন্দীগ্রামে প্রচারে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর আহত হওয়ার ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজ্য-রাজনীতি। ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে রাজ্য তৃণমূলের পক্ষ থেকে। উল্লেখ্য, কালই বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা দলে দলে কর্মী সমর্থকরা হাসপাতালে ভিড় করেছিলেন। রাজ্যপাল হাসপাতালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখতে গেলে, তাঁর উদ্দেশে ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও দেওয়া হয়।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.