কাটল ৫৩টা বছর! অবশেষে হাতে এল হারিয়ে যাওয়া ম্যানিব্যাগ! কিন্তু কীভাবে?

কাটল ৫৩টা বছর! অবশেষে হাতে এল হারিয়ে যাওয়া ম্যানিব্যাগ! কিন্তু কীভাবে? / ছবিঃ প্রতীকি
কাটল ৫৩টা বছর! অবশেষে হাতে এল হারিয়ে যাওয়া ম্যানিব্যাগ! কিন্তু কীভাবে? / ছবিঃ প্রতীকি

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি! বছর ৫৩ পর হারিয়ে যাওয়া ম্যানিব্যাগ ফেরত পেলেন এক জনৈক আমেরিকান ব্যক্তি! একসময় আন্টার্কটিকায় হারিয়ে গিয়েছিল তাঁর ম্যানিব্যাগটি৷ দীর্ঘ ৫৩ বছর পরে হাতে ফিরে পেলেন সেটিকেই। সম্প্রতি কিছু অপরিচিত ব্যক্তি ডাকের মাধ্যমে তাঁর কাছে ফেরত পাঠালেন তা। যা ফিরে পেয়ে বেশ উচ্ছ্বসিতই হয়ে পড়লেন আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ার সান ডিয়েগোর (San Diego) অধিবাসী পল গ্রিশাম।

একসময় নৌবাহিনীতে আবহাওয়াবিদ হিসেবে কাজ করতেন পল গ্রিশাম। তখন তাঁর বয়স ছিল ৩৮ বছর। কাজের সুত্রেই একবার অ্যান্টার্কটিকায় পাড়ি দেন তিনি। ১৩ মাস সেখানেই কাটিয়েছিলেন। সেইসময়ই কোনও এক মুহূর্তে নিজের ম্যানিব্যাগটি হারিয়ে ফেলেন পল। বর্তমানে, তাঁর বয়স প্রায় ৯১ বছর। ডাকযোগের মাধ্যমে হঠাতই ফেরত পেলেন সেই ম্যানিব্যাগ। কিন্তু কী ভাবে নিজের আসল মালিকের কাছে ফেরত এল সেটি?

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম অনুযায়ী, ২০১৪ সালে অ্যান্টার্কটিকার রস আইল্যান্ডের একটি ভবন ভেঙে ফেলার সময় কিছু ব্যক্তি খুঁজে পেয়েছিলেন ম্যানিব্যাগটি। তার মধ্যেই নৌবাহিনীতে কর্মরত পলের পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স-সহ বেশ কিছু ব্যক্তিগত নথিপত্র রাখা ছিল। এগুলির সাহায্যেই পল গ্রিশামের খোঁজ শুরু হয়। পলের বর্তমান ঠিকানা খুঁজে পাওয়া গেলে, এরপর ডাকযোগে তাঁর কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয় ব্যাগটি।

হারিয়ে যাওয়া ম্যানিব্যাগটি ফেরত পেয়ে কী বলছেন পল? এক মার্কিন সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি অবাক হয়ে গিয়েছি। ব্যাগটি আমাকে ফেরত দেওয়ার জন্য কয়েকজন মানুষ বেশ কষ্ট করে এটিকে খুঁজে বের করেছেন।’ যদিও ব্যাগটির ব্যাপারে পলের স্পষ্ট ভাবে কিছুই মনে ছিল না। তবু ব্যাপারটি তাঁর কাছে বেশ চমকপ্রদ ঘটনাই বটে!

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.