বীরভূমের খয়রাকুড়ি সেচ ক্যানেলে পাশাপাশি ভাসছে এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক ও অজগর সাপের মৃতদেহ!

বীরভূমের খয়রাকুড়ি সেচ ক্যানেলে পাশাপাশি ভাসছে এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক ও অজগর সাপের মৃতদেহ!
বীরভূমের খয়রাকুড়ি সেচ ক্যানেলে পাশাপাশি ভাসছে এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক ও অজগর সাপের মৃতদেহ!

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক এবং এক বিশালাকৃতি অজগর সাপের মৃতদেহ পাশাপাশি ভাসমান অবস্থায় মিলল। কীভাবে এক জায়গায় জলে ভাসছে ওই যুবকের এবং অজগর সাপের মৃতদেহ তা নিয়ে ইতিমধ্যেই রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি অজগর সাপটিই কোনোভাবে জড়িয়ে ওই যুবককে মেরে ফেলেছে? আর তার পরে সাপটিও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে! অন্তত তেমনটাই মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। যুবকের পরিচয় জানা চেষ্টা চলছে।

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মহঃবাজার থানা এলাকার তিলপাড়া জলাধারের খয়রাকুড়ি সেচ ক্যানেলে। শনিবার রাতে স্থানীয় বাসিন্দারা প্রথমে বিষয়টি লক্ষ করেন। তাঁরা দেখতে পান যে, ওই সেচ ক্যানেলের জলে ভাসছে এক যুবক এবং একটি বিশালাকৃতি অজগর সাপের মৃতদেহ। ঘটনাটি দেখেই তাঁরা হতবাক হয়ে যান। রাতেই পুলিশকে সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয়। পুলিশও খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। কিন্তু রাতে ওই যুবকের দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

এরপর শনিবার সকালে সিভিল ডিফেন্সের সহযোগিতায় শুরু হয় ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করার কাজ। দীর্ঘক্ষণের প্রচেষ্টায় জলে ভাসমান অবস্থায় থাকা ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় এবং ইতিমধ্যেই তা ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েও দেওয়া হয়েছে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। বহু মানুষটি এই ঘটনা চাক্ষুষ করতে ভিড় জমান ঘটনাস্থলে।

স্থানীয় এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, ‘এসে দেখলাম এক যুবকের মৃতদেহ এবং একটি অজগর সাপ জলের মধ্যে মৃত অবস্থায় ভাসছে। কবে মরেছে বোঝা যাচ্ছে না। পাশাপাশি মৃত ওই যুবককে চেনাও যাচ্ছে না।’ তিনি এও বলেন যে, ‘মনে হচ্ছে ওই সাপটিই যুবককে মেরেছে।’ আর এই ঘটনা যদি সত্যি হয়, তাহলে এমন ঘটনা বীরভূমে নজিরবিহীন। বীরভূমের বিভিন্ন এলাকা থেকে অজগর সাপের উদ্ধার হওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। তবে, এখনও পর্যন্ত অজগর সাপের কারণে কারও প্রাণহানি হয়েছে, এমন ঘটনা সাম্প্রতিকে ঘটেনি। তাই ওই যুবকের সত্যি সাপের কারণে মৃত্যু হলে, তা বীরভূমে নজিরবিহীন ঘটনাই বটে।