প্রাক্তন জাতীয় বক্সার বর্তমানে অটোচালক! তাঁর স্বপ্নের অ্যাকাডেমি গড়তে এগিয়ে এলেন আনন্দ মাহিন্দ্রা

প্রাক্তন জাতীয় বক্সার বর্তমানে অটোচালক! তাঁর স্বপ্নের অ্যাকাডেমি গড়তে এগিয়ে এলেন আনন্দ মাহিন্দ্রা
প্রাক্তন জাতীয় বক্সার বর্তমানে অটোচালক! তাঁর স্বপ্নের অ্যাকাডেমি গড়তে এগিয়ে এলেন আনন্দ মাহিন্দ্রা

এককালে তিনি ছিলেন জাতীয় স্তরের একজন বক্সার। জিতেছিলেন উত্তর ভারতের বক্সিং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খেতাব। পাশাপাশি ভারতীয় সেনাবাহিনীর বক্সিং দলকে পাঁচ বছর ট্রেনিংও করিয়েছেন তিনি। পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে বিভিন্ন জায়গায় বক্সিং প্রতিযোগিতাতেও গিয়েছিলেন। পাতিয়ালার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ স্পোর্টসের ছাত্রও ছিলেন তিনি। সেই আবিদ খান এখন পেশায় অটোচালক। অটো চালিয়েই দিন গুজরান হয় তাঁর৷

সম্প্রতি তাঁর একটি ভিডিও ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়। সেখানেই নিজের পরিস্থিতির কথা জানান দেন আবিদ খান। যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও কপালে জোটেনি কোনও চাকরি৷ যেখানেই গিয়েছেন ফিরতে হয়েছে খালি হাতে। পরিবারের হাল ধরতে অটো চালানোর পথই বেছে নিয়েছেন তিনি। রুজি-রুটির তাগিদে মাঝে মধ্যে মুটের কাজও করতে হয় তাঁকে। এভাবেই দিন চলে তাঁর। তবে তাঁর এখনও স্বপ্ন বক্সিং রিংয়ে ফেরার৷ কোচ হিসাবে প্রশিক্ষণ দিতে চান তিনি। খুলতে চান তাঁর স্বপ্নের অ্যাকাডেমি। কিন্তু নিজের সে সামর্থ্য নেই আবিদের। তাই স্বপ্ন যেন স্বপ্নই রয়ে গিয়েছে৷ এমনকি নিজের করুন পরিস্থিতির কারণে ছেলে-মেয়েদেরও খেলাধূলার নেশা ধরাননি তিনি।

তবে সম্প্রতি যেন ভাগ্যের চাকা ঘুরতে চলেছে আবিদের। তাঁর এই অবস্থায় কথা জেনে সাহায্যের হাত বাড়াতে রাজি স্বয়ং আনন্দ মাহিন্দ্রা৷ সম্প্রতি টুইট করে এই শিল্পপতি জানিয়েছেন, আবিদের বক্সিং অ্যাকাডেমির জন্য বিনিয়োগ করতে চান তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি লেখেন, “আবিদ কারোর কাছেই সাহায্য চাননি। এটাই সবচেয়ে প্রশংসার। আমি সবসময় মেধাবী লোকেদের মেধা এবং প্যাশনের উপর বিনিয়োগ করতে পছন্দ করি, অনুদান দিতে নয়। আমায় জানাবেন কীভাবে ওঁর স্টার্টআপ বক্সিং অ্যাকাডেমির জন্য বিনিয়োগ করতে পারব।”

অর্থাৎ, আবিদের স্বপ্নের বক্সিং অ্যাকাডেমি গড়তে আনন্দ মাহিন্দ্রা এক পায়ে রাজি। সেই জন্য খোলা হাতে অনুদানও দিতে ইচ্ছুক। আবিদের স্বপ্নপূরণের পথে এক ধাপ এগোতে সাহায্য করতে নিজে থেকেই এই প্রস্তাব দিলেন স্বয়ং শিল্পপতি৷ এবার প্রাক্তন জাতীয় বক্সারের স্বপ্নের অ্যাকাডেমি গড়ে তোলা যেন সময়ের অপেক্ষা…

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.