করোনা আতঙ্কেও স্পর্ধা চিনের, কুকুরের মাংসের উৎসব শুরু

গত রবিবারই গোটা পৃথিবীতে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন করোনা ভাইরাসে। রবিবার মাত্র ২৪ ঘন্টায় সারা পৃথিবী জুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ৮৩ হাজার মানুষ। এই মুহূর্তে কোভিড-১৯ সারা পৃথিবীতেই তার থাবা বসিয়েছে। আর এই ভাইরাস ছড়ানোয় সারা বিশ্বের আঙুল উঠছে চিনের দিকেই। বহু মানুষ এটাও দাবী করেছেন করোনা আসলেই চিনের জৈবিক হাতিয়ার। একই সুর শোনা গিয়েছিল আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্র্যাম্পের গলাতেও।

প্রথম দিকে করোনাকে তিনি অভিহিত করেছিলেন ‘চিনা ভাইরাস’ নামেও। তবে চিনের দাবী ছিল কোভিড ১৯ ছড়িয়েছে উহানের মাংসের বাজার থেকে। চিন দাবি করেছিল এই ভাইরাস ছড়ানোর পর থেকেই সেই মাংসের বাজার বন্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু চিনের দাবিকে নস্যাত করে সেই বাজারেই ফের শুরু হয়ে গেলো কুকুরের মাংসের উৎসব।

যদিও এই উৎসব নিয়ে রয়েছে চিনের প্রাণী সম্পদ মন্ত্রকের নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু উৎসবের আয়োজকদের ভ্রুক্ষেপ নেই সেদিকে। সম্প্রতি এই উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে ইউলিনে। জানা গিয়েছে আগামী দশদিন ধরে চলবে এই মাংস উৎসব। এমনকী এই উৎসব উপলক্ষে বহু মানুষ সেখানে ইতিমধ্যেই ভিড় জমিয়েছেন। তবে চিনের সরকার ব্যাপারটি নিয়ে যথেষ্ট কড়া মনোভাব নিচ্ছে বলে দাবী উঠেছে অনেকের তরফে। এমনকী কুকুরের মাংস খাওয়ার ফলে স্বাস্থ্যের ভয়ঙ্কর পরিণতির কথা ভেবেও সাধারণ মানুষ অনেক বেশি সতর্ক বলেও দাবী করেছেন কেউ কেউ।

আরও পড়ুনঃ  মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারিতে বাস মালিকদের সুর নরম, স্বস্তি নিত্য যাত্রীদের

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.