“জঞ্জালে কুকুরও শোয় না”! শ্রাবন্তীর দলত্যাগের পর মুখ খুললেন অনুব্রত মণ্ডল

"জঞ্জালে কুকুরও শোয় না"! শ্রাবন্তীর দলত্যাগের পর মুখ খুললেন অনুব্রত মণ্ডল

এমনিতেই নিজের ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে বরাবর শিরোনামে থাকেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী। তারপর গতকাল তার একটি টুইটে শোরগোল গোটা নেট দুনিয়ায়। ২০২১ এর নির্বাচনে বিজেপির হয়ে ভোটে দাড়িয়েছিলেন অভিনেত্রী। তারপর সেখানে জয়ের মুখ দেখেননি তিনি। তারপর হটাৎ করে গতকাল তিনি টুইট করে জানান বিজেপির সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ত্যাগ করলেন তিনি। এই দল রাজ্যের উন্নয়নে সেরকম আগ্রহী নয়। তাই তিনি দল ছাড়লেন। তারপরই নেট দুনিয়ায় ওঠে ঝড়। হয় মিম এর বন্যা।

এবার এই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন “জঞ্জালে কুকুরও শোয় না, তাহলে শ্রাবন্তী একজন মহিলা হয়ে কী করে ওই জঞ্জালে থাকবেন।” অর্থাৎ বিজেপি দলকে তিনি জঞ্জাল বলে কটাক্ষ করেন। আরও বলেন রাস্তায় নোংরা জায়গাতে কুকুরও শোয় না সেখানে শ্রাবন্তীর মত অভিনেত্রী কিভাবে থাকবেন। বিজেপি দলে কোনও ভদ্রলোক থাকেন না। তাই সকলেই দল ত্যাগ করেন। তিনি বলেন ” , “আসলে দলটা জঞ্জাল। এই জঞ্জালে ভদ্রলোক থাকা মুশকিল আছে। তারপর আবার মহিলা। ওঁর (শ্রাবন্তী) পক্ষে জঞ্জালে থাকা সম্ভব নয়। শ্রাবন্তী কেন, সবাই একে একে ছাড়বে। সবাই মমতা ব্যানার্জীর উন্নয়নের শামিল হবে।”

এদিকে বিজেপি দলের সদস্যরা বলেন উনি নিজে থেকেই এসেছিলেন বিজেপিতে যোগদান করার জন্য। ওনাকে একটি বড় জায়গাও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু উনি জয় লাভ করতে পারেন নি। উনি দল ছেড়ে দিলে দলের কোনও ক্ষতি হবে না। মজা করে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা অনুপম হাজরা টুইট করে লেখেন, “শ্রাবন্তী’র মতো নেত্রী বিজেপি ছেড়ে চলে যাওয়ায়, সংগঠনের যে ভয়ানক ক্ষতি হয়ে গেল, তা হয়তো ভবিষ্যতে কোনদিনই পূরণ হবে না।”