‘বিজেপি ছাগলের দল, তাই ছাগলের মত চড়ে বেড়াক’, কটাক্ষ অনুব্রতর!

‘বিজেপি ছাগলের দল, তাই ছাগলের মত চড়ে বেড়াক’, কটাক্ষ অনুব্রতর!
‘বিজেপি ছাগলের দল, তাই ছাগলের মত চড়ে বেড়াক’, কটাক্ষ অনুব্রতর!

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ভবানীপুরের উপনির্বাচনের ফল ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে। এই কেন্দ্রে বিপুল ভোটে জিতেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই কেন্দ্রের লড়াই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য ছিল সম্মানের লড়াই। এই কেন্দ্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন বিজেপির প্রিয়াঙ্কা টিররেওয়াল এবং বাম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদেরও মত ছিল, এই কেন্দ্রে পাল্লা ভারী ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। নন্দীগ্রামের মতোই এই কেন্দ্রের লড়াই ছিল হাইভোল্টেজ লড়াই।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জমজমাট প্রচার করেছে তিন রাজনৈতিক দল। শেষ পর্যন্ত শিকে ছিঁড়ল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়য়ের ভাগ্যেই, তাও বিপুল ব্যবধানে। নিজের রেকর্ড নিজেই ভেঙে, জয়ের নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৫৮ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে নিজের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিজেপির প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালকে বিরাট মার্জিনে পরাজিত করেন তিনি। আর মমতার জেতার পরই ফের বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বললেন, ‘বিজেপি ছাগলের দল, তাই ছাগলের মত চড়ে বেড়াক।’ বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকেও তিনি ‘পাগল’ বলে কটাক্ষ করেছেন।

উল্লেখ্য, এদিন ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের পরেই বোলপুরে তৃণমূলের জেলা পার্টি অফিসে উৎসব শুরু হয়ে যায়। সবুজ আবির খেলার পাশাপাশি পথচলতি মানুষদের মিষ্টিমুখ করানো হয়। তৃণমূলের সমর্থকরা রাস্তায় নেমে আসেন। পাশাপাশি বোলপুরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে আবির খেলা হয়।

এরপরই সাংবাদিক বৈঠক করেন অনুব্রত মণ্ডল। জয়ের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়ে, বলেন, ‘একের পর এক উন্নয়ন প্রকল্পের সূচনা করে চলেছেন মমতা। আর বিজেপি দেশের সম্পত্তি বিক্রি করে দিচ্ছে। মানুষ সব দেখছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কারও তুলনা হয় না। কথা দিয়েছিলেন, কথা রেখেছেন। বাংলা মেয়েদের জন্য ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ চালু করেছে। দেশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনও বিকল্প নেই।’

এরপরই অনুব্রত মণ্ডল বিজেপিকে নজিরবিহীনভাবে কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কারও তুলনা হয় না। আমি বলেছিলাম, ৬০ থেকে ৮০ হাজার ভোটে জিতবে। তৃণমূল জিতবে না কী বিজেপি জিতবে? বিজেপি এখন কী করবে, ওরা ঠিক করবে। বাড়িতে বসে থাকবে না চারপায়ে হাঁটবে। মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজ দেখছে, উন্নয়ন দেখছে। উনি যা বলেন, তা সফল করে দেখান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কি ছাগল-বিড়ালের তুলনা হয়? শুভেন্দু পাগল ও মানুষের পর্যায়ে নেই। এরা সব ছাগল বিড়াল।’ তাঁর আরও বক্তব্য, ‘আমি আবারও বলছি, কোর্ট যদি রায় দেয়, নন্দীগ্রামে গণনা হলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখানেও ৫০ হাজার ভোটে জিতবেন।’