ATM থেকে ছেঁড়াফাটা নোট পেয়েছেন? এই পদ্ধতিতে পেয়ে যাবেন নতুন নোট

বর্তমানে প্রায় সকলেই টাকা তোলার ক্ষেত্রে এটিএম কেই বেছে নেন। ব্যাংকে গিয়ে টাকা না তুলে এটিএম থেকে টাকা তুলে নেওয়াটাই শ্রেয় মনে করেন গ্রাহকরা। তবে মাঝে মধ্যেই গ্রাহকদের একটি সমস্যার মুখে পড়তে হয় সেটি হল অনেক সময় এটিএম থেকে ছেরা, পুরনো অথবা রঙ লেগে থাকা বা কিছু লেখা নোটের গায়ে এই ধরনের নোট বেরিয়ে আসে। এবার সেই নোট নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় গ্রাহকদের। তবে এই নোট নিয়ে আর চিন্তার কোনও কারণ নেই। এইভাবেই বদলে ফেলতে পারবেন ছেড়া, রং বা কিছু লেখা নোট। যে ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকাটি তুলেছেন সেই ব্যাংকের ব্রাঞ্চে প্রথমে যেতে হবে। সেখানে গিয়ে একটি আবেদন লিখতে হবে। আবেদনে সমস্ত আপডেট দিতে হবে। যেমন কত টাকা, কোন টাকার গায়ে রং লেগে আছে। তাছাড়াও এটিএম থেকে যে স্লিপ পাওয়া গেছে তার বিশদ বিবরণ ওই আবেদন পত্রে লিখতে হবে। তারপরই ওই ব্যাংক কতৃপক্ষ আপনার নোট পরিবর্তন করে দিতে বাধ্য। যদি কোনও কারণে স্লিপ হারিয়ে ফেলেন তার বিকল্পও রয়েছে। সেক্ষেত্রে আপনি টাকা তোলার সময় আপনার ফোনে যে মেসেজ আসে সেই মেসেজের বিবরণ দিয়ে আবেদন পত্রে লিখে ব্যাংকে জমা দিন। সেক্ষেত্রেও আপনি পেয়ে যাবেন নতুন নোট।
ATM থেকে ছেঁড়াফাটা নোট পেয়েছেন? এই পদ্ধতিতে পেয়ে যাবেন নতুন নোট

বর্তমানে প্রায় সকলেই টাকা তোলার ক্ষেত্রে এটিএম কেই বেছে নেন। ব্যাংকে গিয়ে টাকা না তুলে এটিএম থেকে টাকা তুলে নেওয়াটাই শ্রেয় মনে করেন গ্রাহকরা। তবে মাঝে মধ্যেই গ্রাহকদের একটি সমস্যার মুখে পড়তে হয় সেটি হল অনেক সময় এটিএম থেকে ছেরা, পুরনো অথবা রঙ লেগে থাকা বা কিছু লেখা নোটের গায়ে এই ধরনের নোট বেরিয়ে আসে। এবার সেই নোট নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় গ্রাহকদের। তবে এই নোট নিয়ে আর চিন্তার কোনও কারণ নেই। এইভাবেই বদলে ফেলতে পারবেন ছেড়া, রং বা কিছু লেখা নোট।

যে ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকাটি তুলেছেন সেই ব্যাংকের ব্রাঞ্চে প্রথমে যেতে হবে। সেখানে গিয়ে একটি আবেদন লিখতে হবে। আবেদনে সমস্ত আপডেট দিতে হবে। যেমন কত টাকা, কোন টাকার গায়ে রং লেগে আছে। তাছাড়াও এটিএম থেকে যে স্লিপ পাওয়া গেছে তার বিশদ বিবরণ ওই আবেদন পত্রে লিখতে হবে। তারপরই ওই ব্যাংক কতৃপক্ষ আপনার নোট পরিবর্তন করে দিতে বাধ্য।

যদি কোনও কারণে স্লিপ হারিয়ে ফেলেন তার বিকল্পও রয়েছে। সেক্ষেত্রে আপনি টাকা তোলার সময় আপনার ফোনে যে মেসেজ আসে সেই মেসেজের বিবরণ দিয়ে আবেদন পত্রে লিখে ব্যাংকে জমা দিন। সেক্ষেত্রেও আপনি পেয়ে যাবেন নতুন নোট।