দীপাবলিতে বিষমদ ফের বিপদ ডেকে আনল বিহারে! গোপালগঞ্জে বিষমদের বলি অন্তত ৯

দীপাবলিতে বিষমদ ফের বিপদ ডেকে আনল বিহারে! গোপালগঞ্জে বিষমদের বলি অন্তত ৯
দীপাবলিতে বিষমদ ফের বিপদ ডেকে আনল বিহারে! গোপালগঞ্জে বিষমদের বলি অন্তত ৯ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আবারও বিহারে বিষমদ বিপদ ডেকে আনল। দীপাবলির উৎসবের আবহে বিহারের গোপালগঞ্জে বিষমদ পানে অন্তত ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আরও ৭ জন।

এই খবর নিশ্চিত করেছেন জেলাশাসক (DM ) নওয়ল কিশোর চৌধুরী। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে বলেই খবর। এদিকে এই ঘটনায় উদ্বেগে প্রশাসন। এমনিতেই ড্রাই স্টেট হিসেবে পরিচিত বিহার। নীতিশ কুমার বিহারের শাসনক্ষমতায় বসার পর থেকেই বিহারে মদ নিষিদ্ধ হয়েছে। তা সত্ত্বেও গ্রামে-গঞ্জে প্রশাসনের নজরকে ফাঁকি দিয়েই বিক্রি হচ্ছে বিষমদ। তাই মাঝে মধ্যেই বিহারে বিষমদ খেয়ে মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসে।

গত জুলাইয়ে বিহারের পশ্চিম চম্পারণে বিষমদ খেয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আশেপাশের গ্রামগুলিতেও মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। তাতে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। এরপর ঘটনার গুরুত্ব বুঝে, তদন্তের নির্দেশ দেয় প্রশাসন। সেই ঘটনার পর, ফের একবার বিষমদে মৃত্যুর ঘটনা ঘটল বিহারেই। গোপালগঞ্জের ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট নওয়ল কিশোর চৌধুরী জানিয়েছেন, ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও হাসপাতালে ৭ জন চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে, আর কতজন এরকম মদ খেয়ে অসুস্থ হয়েছেন, সেই তথ্য এখনও অজানা প্রশাসনের।

এই অবস্থায় অনেকেই মনে করছেন যে, ‘মদমুক্ত’ বিহারে উৎসবের মরশুমে বেআইনি মদের ব্যবসা রমরমিয়ে চলে। সেই কারণেই এ ধরনের বিপদ বাড়ছে। কিন্তু চোরাপথে কীভাবে মদ বিক্রি হচ্ছে, সেদিকে নজরদারি বাড়াচ্ছে প্রশাসন। তেমনটাই সূত্রের খবর।