বিয়েবাড়ির মেনুতে নেই খাসির মাংস! চটে গিয়ে বিয়ে ভেঙে দিয়ে অন্য পাত্রীর সঙ্গে ঘর বাঁধলেন বর

বিয়েবাড়ির মেনুতে নেই খাসির মাংস! চটে গিয়ে বিয়ে ভেঙে দিয়ে অন্য পাত্রীর সঙ্গে ঘর বাঁধলেন বর / প্রতীকী ছবি
বিয়েবাড়ির মেনুতে নেই খাসির মাংস! চটে গিয়ে বিয়ে ভেঙে দিয়ে অন্য পাত্রীর সঙ্গে ঘর বাঁধলেন বর / প্রতীকী ছবি

বিয়েবাড়ি মানেই চারদিকে হইহই, সাজো সাজো রব৷ চারপাশে উৎসবের মেজাজ। কিন্তু সে বিয়েই যদি ভেঙে যায় কোনও সামান্য কারণে? আজকাল নানা আজব কারণে বিয়ে ভাঙার কথা শোনা যায়৷ কিন্তু খাসির মাংসের অভাবে বিয়ে ভেঙে দিল হবু বর! এমন কথা কোনও দিন শুনেছেন কি? শুধু তা-ই নয়, বাড়ি ফেরার পথে অন্য এক পাত্রীকে বিয়েও করলেন বর। কারণ, মাত্র একটিই। যাঁকে প্রথমে বিয়ে করতে গিয়েছিলেন সেই প্রথম কনের বাড়ির মেনুতে ছিল না খাসির মাংস। সেই কারণে বিয়ে ভেঙে অন্য পাত্রীকে বিয়ে করে নিলেন বর!

ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশায়। জানা গিয়েছে, ওই পাত্রের নাম রমাকান্ত পাত্র। ওড়িশার সুকিন্দা ব্লকের বাঁধাগাঁও গ্রামে বিয়ে করতে গিয়েছিলেন ২৭ বছরের রমাকান্ত। কিন্তু বিয়েবাড়ির ভোজে বরযাত্রীদের পাতে পড়েনি খাসির মাংস। বরযাত্রীদের মাটন খাওয়ার ইচ্ছে থাকলেও মেনুতে না থাকায় তা পরিবেশন করতে পারেননি কনের বাড়ির সদস্যরা। সেই কারণেই চটে যান বরমশাই৷ রেগে গিয়ে বিয়েই ভেঙে দেন। তারপর বরযাত্রীদের নিয়ে বিয়েবাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন ওই যুবক।

জানা গিয়েছে, ওই দিন এরপর নিজেদের এক আত্মীয়ের বাড়িতেই কাটান তাঁরা। শুধু তাই নয়, সেই রাতেই অন্য আরেকটি মেয়েকে বিয়েও করে নেন রমাকান্ত। তাঁকে নিয়েই কেওনঝড়ে নিজের বাড়িতে ফেরেন ওই যুবক। যদিও এই ঘটনায় থানায় কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই শোরগোল পড়ে যায়। আসলে মাটনের কারণে বিয়ে ভেঙে দেওয়ার এই ঘটনা সচরাচর শোনা যায় না। তাই ঘটনাটি সামনে আসতেই হইচই ফেলে দিয়েছেন নেটিজেনরা।