রাজমিস্ত্রীদের সঙ্গে প্রেমপর্বের ইতি! অবশেষে স্বামীদের কাছেই ফিরছেন বালির ২ গৃহবধূ

রাজমিস্ত্রীদের সঙ্গে প্রেমপর্বের ইতি! অবশেষে স্বামীদের কাছেই ফিরছেন বালির ২ গৃহবধূ
রাজমিস্ত্রীদের সঙ্গে প্রেমপর্বের ইতি! অবশেষে স্বামীদের কাছেই ফিরছেন বালির ২ গৃহবধূ

বালির পলাতক গৃহবধূ কাণ্ডে ইতিমধ্যেই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন দুই রাজমিস্ত্রী, শেখর রায় এবং শুভজিৎ দাস। জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরই তাঁরা জানিয়েছিলেন, ‘রাজমিস্ত্রি বলে কি আমরা মানুষ নয়? আমাদের মন নেই? আমরাও তো ভালোবাসতে পারি। আমরা আইন মেনে আমাদের প্রেমিকাদের বিয়ে করে সংসার করতে চাই।’ এমনকি নিজেদের মনের মানুষের সন্ধান না পেয়ে খোঁজও চালাচ্ছিলেন তাঁরা। দুই গৃহবধূ অনন্যা ও রিয়ার ফোন পুলিশি হেফাজতে থাকায় গৃহবধূদের পরিচিতদের ফোন করে তাঁদের খবর নিচ্ছিলেন শেখর ও শুভজিৎ। তবে এবার কাহিনীতে এল ‘ট্যুইস্ট’! রাজমিস্ত্রীদের সঙ্গে প্রেমপর্বের ইতি ঘটিয়ে অবশেষে স্বামীর ঘরেই ফিরছেন অনন্যা ও রিয়া।

সুত্রের খবর, শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে এখন নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন দুই গৃহবধূ। স্বামীদের সঙ্গে যাবতীয় মনোমালিন্যও মিটে গিয়েছে। খুবই শীঘ্রই তাঁরা ফিরে আসবেন স্বামীদের কাছে। এ খবরে শিলমোহর দিয়েছেন এক গৃহবধূর স্বামী পলাশ কর্মকার। তাঁর কথায়, ডিভোর্সের কথা হয়নি। অনন্যা ও রিয়া সুরক্ষিত জায়গায় রয়েছেন। পাশাপাশি এই ঘটনার সমস্ত দায় রাজমিস্ত্রীদের উপর চাপিয়ে তিনি বলেন, দুই রাজমিস্ত্রী বাড়ির দুই বউকে ফুসলে নিয়ে গিয়েছিল। ওরা ক্রিমিনাল। তাই ওদের সঙ্গে অনন্যা ও রিয়ার জীবন কাটানোর প্রশ্নই নেই। এমনকি স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালো এবং নিয়মিত কথা হয় বলেও জানান তিনি। অর্থাৎ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সমস্ত সমস্যার মিটমাট হয়ে বালির দুই গৃহবধূ যে শ্বশুরবাড়িতেই ফিরছেন, এমনই ইঙ্গিত দিলেন কর্মকার পরিবারের ছেলে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ ডিসেম্বর শ্রীরামপুরে শীতের পোশাক কিনতে যাওয়ার নাম করে শেখর ও শুভজিতের সঙ্গে পালিয়ে যান বালির দুই গৃহবধূ, অনন্যা ও রিয়া। সঙ্গে ছিল রিয়ার সাত বছরের ছেলে আয়ুষও। তাঁরা প্রথমে ওঠেন রাজমিস্ত্রীদের সামশেরগঞ্জেরবাড়িতে। এক রাত সেখানে কাটিয়ে এরপর মুম্বইয়ের উদ্দেশে রওনা দেন রাজমিস্ত্রী ও গৃহবধূরা। পরে অবশ্য পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন চার জন। গৃহবধূ দুজনকে ছেড়ে হলেও অপহরণের অভিযোগে হাজতবাসে কাটাতে হয় শেখর ও শুভজিৎকে। তবে পরে অনন্যা ও রিয়ার জবানের ভিত্তিতে ছাড়া পান দুই রাজমিস্ত্রী। তারপরই প্রেমিকাদের খোঁজ মরিয়া হয়ে ওঠেন দু’জনে। তবে এত কিছুর পরও রাজমিস্ত্রীদের অতীত করে অনন্যা ও রিয়া যে অবশেষে শ্বশুর বাড়িতেই ফিরছেন এমন ইঙ্গিতই মিলল এবার।