শীঘ্রই চালু হতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের ‘বাংলা ডেয়ারি প্রকল্প’

শীঘ্রই চালু হতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের 'বাংলা ডেয়ারি প্রকল্প'
শীঘ্রই চালু হতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের 'বাংলা ডেয়ারি প্রকল্প'

বাংলার নিজস্ব বাংলা ডায়েরি প্রকল্প চালু করবেন বলে জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতই চলতি বছরেই খুব শিঘ্রই চালু হতে চলেছে বাংলা ডেয়ারি প্রকল্প। জানা গিয়েছে, সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি মাসে অর্থাৎ ৩০ নভেম্বর চালু হতে পারে এই প্রকল্প।

প্রাণিসম্পদ বিকাশ দফতর সূত্রে খবর, প্রথম দিকে দৈনিক ৪৫ হাজার লিটার দুধ নিয়ে পথ চলা শুরু করবে বাংলা ডেয়ারি। এরপর যদি চাহিদা বাড়ে তাহলে সেক্ষেত্রে দৈনিক ৮০ হাজার লিটারের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বিক্রয় বাড়ানো হবে। অর্থাৎ বিভিন্ন রাজ্যের মতো দুধ ও দুধজাত পণ্যের নিজস্ব ব্র্যান্ড চালু হতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গেও।

প্রথমে বাংলা ডেয়ারির ৫১২টি আউটলেট চালু হবে। কলকাতা ছাড়াও হাওড়া, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জুড়ে পাওয়া যাবে। পাশাপাশি একটি বেসরকারি সংস্থাকে বাংলা ডেয়ারির প্রচার ও ব্র্যান্ডিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।মাদার ডেয়ারির মতোই লুজ দুধ বিক্রি হবে এখন। পরে অবশ্য ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে দুধের পাউচও বাজারে আনা হবে। তবে দামের খুব একটা হেরফের হবে না বলেও জানা গিয়েছে।

এদিকে, দুধের যোগান বাড়াতে রাজ্যের বিভিন্ন জেলা যেমন মুর্শিদাবাদের ভাগীরথী, বাঁকুড়ার কংসাবতী, মেদিনীপুর ও ইছামতী দুগ্ধ সমবায়গুলির উৎপাদন বাড়ানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। বাংলার নিজস্ব এই প্রকল্প চালু হলে বিপুল কর্মসংস্থানও যে তৈরি হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।