কোহলির বিরুদ্ধে কি সত্যিই অভিযোগ তুলেছিলেন ক্রিকেটাররা? মুখ খুললেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ

কোহলির বিরুদ্ধে কি সত্যিই অভিযোগ তুলেছিলেন ক্রিকেটাররা? মুখ খুললেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ
কোহলির বিরুদ্ধে কি সত্যিই অভিযোগ তুলেছিলেন ক্রিকেটাররা? মুখ খুললেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ

সামনেই টি-২০ বিশ্বকাপ। তবে তার আগেই বড় চমক দিয়েছেন দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সম্প্রতিই তিনি ঘোষণা করেন, কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের পরই টি-২০ ক্রিকেটের নেতৃত্ব ছাড়বেন কোহলি। এরপরই আলোচনা চলছে, আচমকা কেন এও সিদ্ধান্ত নিলেন বিরাট? তবে কি ভারতীয় ক্রিকেট মহলে তাঁর সঙ্গে বাকিদের দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে? এসবের মাঝে একাধিক রিপোর্টেও উঠে এসেছিল, ভারতীয় ড্রেসিং রুমের অনেকেই এখন বিরাট বিরোধী৷ রাহানে, পূজারা, অশ্বিনের মতো বহু সিনিয়র খেলোয়াড়ই কোহলির বিরুদ্ধে চলে গিয়েছেন। তাঁরা নাকি কোহলির বিরুদ্ধে বিসিসিআই সেক্রেটারির কাছে অভিযোগও করেছিলেন।

কোহলির বিরুদ্ধে কি সত্যিই অভিযোগ তুলেছিলেন ক্রিকেটাররা? মুখ খুললেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ
কোহলির বিরুদ্ধে কি সত্যিই অভিযোগ তুলেছিলেন ক্রিকেটাররা? মুখ খুললেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ

তবে এই খবর এবার ফুৎকারে উড়িয়ে দিলেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমল। যাবতীয় রিপোর্টে নস্যাৎ করে তিনি জানালেন, এই খবরের কোনও সত্যতাই নেই। সবই সংবাদমাধ্যমের মনগড়া। সম্প্রতি এক দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ধুমল জানান, “আমি অন রেকর্ড একটাই কথা বলতে চাই। কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারই বিরাট কোহলির বিরুদ্ধে বিসিসিআই-এর কাছে মৌখিক বা লিখিত অভিযোগ করেনি। এভাবে প্রতিটি রিপোর্ট ভুল লেখা হচ্ছে৷ বিসিসিআই এসব ভুয়ো রিপোর্টের উত্তর দেবে না। কোথাও আবার একটা লেখা হয়েছে ভারতের বিশ্বকাপ দলেও নাকি পরিবর্তন হবে। এসব কে বলেছে? মিডিয়াতে এসব আবর্জনা লেখা বন্ধ হোক।”

পাশাপাশি ধুমলের মত, এইরকম ভুয়ো রিপোর্ট ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য ক্ষতিকারক। সংবাদমাধ্যমের উচিৎ সঠিক তথ্যই করা। উল্লেখ্য, কয়েক দিন ধরেই কোহলির সঙ্গে ড্রেসিং রুমের সম্পর্ককে কেন্দ্র করে একাধিক রিপোর্ট উঠে আসছে। সেখানে দাবী করা হচ্ছে, দলের সিনিয়র ক্রিকেটারা নাকি অধিনায়ক কোহলির উপর খাপ্পা। বিশেষ করে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে হারের পর এই দ্বন্দ্ব আরও বেশি করে প্রকাশ্যে এসেছে। যদিও এইসব দাবীকেই অস্বীকার করে জল্পনায় আপাতত জল ঢেলে দিলেন অরুণ ধুমল।