‘করোনাযুদ্ধে ভারতের ভূমিকা বিশ্বের প্রশংসা অর্জন করেছে’, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে বললেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকর

‘করোনাযুদ্ধে ভারতের ভূমিকা বিশ্বের প্রশংসা অর্জন করেছে’, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে বললেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকর
‘করোনাযুদ্ধে ভারতের ভূমিকা বিশ্বের প্রশংসা অর্জন করেছে’, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে বললেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকর

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ আজ সস্ত্রীক করোনার ভ্যাকসিন নিলেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকর। বৃহস্পতিবার আলিপুর কমান্ড হাসপাতালে গিয়ে তিনি করোনা টিকা নেন। তাঁর স্ত্রীকেও আজ করোনা টিকা দেওয়া হয়। এরপর নিজেই সেই ছবি ও ভিডিও টুইটারে পোস্ট করে জানান তাঁর টিকা নেওয়ার কথা।

এদিন টিকা নিয়ে রাজ্যপাল জানিয়েছেন, ‘করোনাযুদ্ধে ভারতের ভূমিকা বিশ্বের প্রশংসা অর্জন করেছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশ এই মুহূর্তে ভ্যাকসিনের জন্য ভারতের মুখাপেক্ষী। এই অবস্থায় আমি দেশের তৈরি ভ্যাকসিন গ্রহণ করে গর্বিত বোধ করছি’। একইসঙ্গে এদিন স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসক-সহ সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকর।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ থেকে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশজুড়ে শুরু হয় লকডাউন। এই সময় চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা দিনরাত এক করে অক্লান্ত পরিশ্রম করে গেছেণ মানুষের সেবায় এবং লড়াই করে গেছেন করোনার বিরুদ্ধে। এর অনেক পর, বহু গবেষণার মাধ্যমে বাজারে আসে ভ্যাকসিন। উল্লেখ্য, ভারত বিশ্বের কয়েকটি দেশের পাশাপাশি করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা শুরু করেছিল। সেই গবেষণায় দেশ প্রভূত সাফল্যও অর্জন করে। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলায় দেশিয় প্রযুক্তিতে পুণের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি হয়েছে করোনা টিকা ‘কোভিশিল্ড’। এর পাশাপাশি, ভারত বায়োটেক তৈরি করে ফেলেছে ‘কোভ্যাক্সিন’।

প্রথম পর্যায়ে স্বাস্থ্যকর্মী ও প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের বিনামূল্যে এই টিকা দেওয়া হয়। দ্বিতীয় পর্যায় প্রবীণ নাগরিকদের প্রাধান্য দেওয়া হয়। পাশাপাশি এই পর্যায়ে ৪৫ বছরের বেশি বয়স্ক, যাঁদের অন্যান্য বিশেষ কিছু শারীরিক অসুস্থতা বা কো- মর্বিডিটি রয়েছে, তাঁদের টিকা দেওয়া হচ্ছে। সমস্ত সরকারি হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিনামূল্যে এই টিকা দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে বেসরকারি হাসপাতালে ২৫০ টাকার বিনিময়ে এই করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ করোনা টিকা নিয়েছেন কিছুদিন আগেই। এবার সস্ত্রীক সেই টিকা নিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.