রক্ত সংকট মেটাতে এগিয়ে এল ক্যাকটাস! সিধুর বাড়িতেই হল রক্তদান শিবির
রক্ত সংকট মেটাতে এগিয়ে এল ক্যাকটাস! সিধুর বাড়িতেই হল রক্তদান শিবির

করোনার দাপটে দেশের পাশাপাশি রাজ্যের দশাও বেহাল। কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে হাহাকার৷ শত শত লোক সামিল হচ্ছেন মৃত্যু মিছিলে৷ দিনের পর দিন পরিস্থিতি যেন নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে৷ এরপর গোদের ওপর বিষফোঁড়ার মতো যোগ হয়েছে রক্তের সংকট। এমনিতেই গ্রীষ্মকালীন সময়ে দিকে দিকে রক্তের ঘাটতি চরমে পৌঁছে যায়। চলতি বছরে সে ঘাটতি যেন আরও তীব্র। তার মধ্যেই চলছে করোনার টিকা করণ পদ্ধতি। আর টিকা নেওয়ার ৪৫-৬০ দিনের মধ্যে রক্তদান করা বারণ। ফলে ইতিমধ্যেই রক্তের সংকট বেশ প্রবল হয়ে উঠেছে রাজ্যে।

এই কঠিন পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষের পাশে দাঁড়াতে এবার এগিয়ে এল জনপ্রিয় বাংলা ব্যান্ড ক্যাকটাস। জনসাধারণের স্বার্থে ব্যান্ডের সদদ্যদের মিলিত প্রচেষ্টায় আয়োজিত হল এক রক্তদান শিবির। আজ, শনিবার, ব্যান্ডের মুখ্য গায়ক সিধুর বাড়িতেই বসেছিল সে রক্তদানের আসর। যেখানে রক্ত দিলেন ১২ জন রক্তদাতা। করোনাকালে এর বেশি জমায়েত করা সম্ভবও হয়নি। তবে যেটুকুও রক্ত পাওয়া গেল, তাই বা কম কী!

এই প্রসঙ্গে সিধু স্বয়ং জানিয়েছেন, ” আমরা আসলে ভীষণ নেগেটিভ একটা সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। চারিদিকে এখন মানুষের মৃত্যু। তারই মধ্যে রক্তের সংকটও প্রবল। সেই চিন্তা ভাবনা থেকেই আমাদের তরফে এই ছোট্ট প্রয়াস।” রক্তদানের পাশাপাশি নিজের কন্ঠে গানের মাধ্যমেও অনুষ্ঠানটি মাতিয়ে রেখেছিলেন সিধু। শিবির ছোট্ট হোক, কিন্তু তা যে বেশ সাফল্যের সঙ্গেই শেষ হয়েছে সে কথা বলাই বাহুল্য।

ক্যাকটাসের এই উদ্যোগের মাধ্যমে বেশ বোঝা যাচ্ছে, এই কঠিন পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষের হাত ছাড়েননি শিল্পীরা। বরং যে কোনও সমস্যায় পাশে থেকে সমাধানের চেষ্টায় হাত বাড়িয়ে দিতে প্রস্তুত তাঁরা। আমাদের সমাজে এই শিল্পীদেরই যে এখন বড় প্রয়োজন!

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.