প্রশংসনীয়! নিজের অটোকেই অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে রোগীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই যুবক!

প্রশংসনীয়! নিজের অটোকেই অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে রোগীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই যুবক! / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই
প্রশংসনীয়! নিজের অটোকেই অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে রোগীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই যুবক! / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই

করোনায় কার্যত জেরবার গোটা দেশ। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে অসহায় পরিস্থিতিতে পড়ছেন সাধারণ মানুষও। বিশেষ করে যারা কোভিড আক্রান্ত, তাঁদের পরিবারের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয়। কারণ, চাহিদা বেড়েছে অ্যাম্বুলেন্সেরও৷ ফলে রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য সময় মতো মিলছে না অ্যাম্বুলেন্স বা কোনও গাড়ি। তাই এই পরিস্থিতিতে তাঁদের পাশে এসে দাঁড়ালেন মধ্যপ্রদেশের এক অটোচালক। যিনি এই কঠিন সময়ে অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে পৌঁছে দিচ্ছেন হাসপাতালে।

সংবাদ সংস্থা এএনআই মারফত জানা গিয়েছে ভোপালের ওই অটো চালকের নাম জাভেদ খান। নিজের অটোকেই তিনি পরিণত করেছেন অ্যাম্বুলেন্সে। অক্সিজেন কেনার জন্য রিফিল সেন্টারগুলিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইন দিয়েছেন। এরপর অটোর মধ্যেই রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন তিনি। গত ১৫-২০ দিন ধরেই এই পরিষেবা দিয়ে চলেছেন তিনি। এখনও পর্যন্ত মোট ৯ জন সঙ্কটজনক রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন ওই অটোচালক।

নিজের স্ত্রীর গয়না বেঁচেই এই পরিষেবা দিয়ে চলেছেন জাভেদ। এই প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, যার যখনই প্রয়োজন, তাঁর পাশে দাঁড়াতে তিনি রাজি। প্রত্যেক সাহায্যপ্রার্থীকেই বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দেবেন তিনি। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের নম্বরও শেয়ার করে দিয়েছেন তিনি। যাতে যেকোনও জরুরি পরিস্থিতিতে মানুষ তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।

অটোচালক জাভেদের এই কাহিনী সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসা মাত্রই নেটিজেনদের নজর কাড়ে তা। এই কঠিন সময়ে সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার জন্য অটোচালকটিকে ধন্য ধন্য করছেন প্রত্যেকেই। অনেকে এও মন্তব্য করেছেন, মানবিক এই প্রচেষ্টার জন্য অটোচালকটি সত্যিই শ্রদ্ধার ঊর্ধ্বে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই প্রকাশ্যে এসেছিল রাঁচির এক অটোচালকও একই পরিষেবা চালু করে মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। তাঁদের মতো এই মানুষগুলি সমাজে রয়েছেন বলেই আজও বেঁচে রয়েছে মনুষ্যত্ব।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.