শনিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২২

ভাত-রুটি ছুঁয়েও দেখেন না! ১০ বছর ধরে ঘাস-পাতা ও কাঠ খেয়েই দিব্যি দিন কাটাচ্ছেন এই ব্যক্তি

০১:২৮ পিএম, নভেম্বর ২৯, ২০২১

ভাত-রুটি ছুঁয়েও দেখেন না! ১০ বছর ধরে ঘাস-পাতা ও কাঠ খেয়েই দিব্যি দিন কাটাচ্ছেন এই ব্যক্তি

মানুষ মাত্রই ভোজনরসিক। ভাত, রুটির মতো সাধারণ খাবার থেকে শুরু করে সুযোগ পেলেই নিত্যনতুন নানা পছন্দসই খাবার খেতে ভালোবাসেন সকলে। কিন্তু কারোর প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রয়েছে শুধু ঘাস-পাতা আর কাঠ! এমনটা কখনও শুনেছেন কী? আজ্ঞে, হ্যাঁ! সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমনই এক ব্যক্তির ভিডিও, যিনি প্রতিদিন কেবলমাত্র ঘাস-পাতা খেয়েই দিন কাটাচ্ছেন। ভাত-রুটি ছুঁয়েও দেখেন না!

অদ্ভুত খাদ্যরুচির এই ব্যক্তির নাম ভুরা যাদব। মধ্য প্রদেশের শাহডোল জেলার করকটী গ্রামের বাসিন্দা তিনি। জানা গিয়েছে, গত ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ভাত, রুটি, মাছ মাংসের পরিবর্তে দিব্যি কাঁচা ঘাস, পাতা, কাঠ খেয়ে দিন গুজরান করছেন তিনি। খিদে পেলেও ভাত-রুটি বা অন্য খাবারের কথা ভুলেও ভাবেন না। বরং ঘাস-কাঠই তাঁর কাছে পরমপ্রিয় খাদ্য। এভাবেই নিজের খাদ্যাভ্যাস তৈরি করেছেন ভুরা যাদব। গ্রামের মানুষেরাও তাকে এই খাবার খেতে দেখে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

কিন্তু কেন এই অদ্ভুত অভ্যাস? এই প্রসঙ্গে ভুরা যাদব জানিয়েছেন, দারিদ্র পরিবারে জন্ম হওয়ায় ছেলেবেলা থেকেই ঘাস পাতা খাওয়ার অভ্যাস ছিল। পাশাপাশি কাঠও খেতে শুরু করেন। যখন দুবেলা পেট ভরে খাবার জোগাড় করা কষ্টকর হয়ে পড়তে শুরু করে তখন থেকেই এই ব্যক্তি ঘাস, পাতা, কাঠ খাওয়াকে অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেন। এমন খাবার খেতে খেতে তার সেই অভ্যাসই তৈরি হয়ে যায়। ফলে এখন আর তার অন্য খাবার খেতে ইচ্ছেই করে না তাঁর।

https://youtu.be/u4rB-gghXxs

ভুরা যাদবের এই খাদ্যাভ্যাস দেখে অবশ্য চিকিৎসকরা হতবাক। মানুষের পেটে ঘাস-পাতা বা কাঠ হজম হয় না। এসবে কোনও পুষ্টিও নেই। তা সত্ত্বেও কীভাবে ওই ব্যক্তি ওই সব খেয়ে স্বাভাবিক ভাবে দিন কাটাচ্ছেন, তা চিকিৎসকদের চিন্তার অতীত। অন্যদিকে, ভুরা যাদব জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত এই সব খেয়ে তাঁর কোনোও সমস্যা হয়নি। কোন রোগও হয়নি। সবই তিনি হজম করতে সক্ষম। ফলে সুস্থ-স্বাভাবিক ভাবেই বেঁচে রয়েছেন তিনি৷