অন্যান্য

নভেম্বরের ১ তারিখ থেকে, গ্যাস সিলিন্ডার ডেলিভারিতে বড় পরিবর্তন! রইল বিস্তারিত

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ কেন্দ্রের বিজেপিশাসিত সরকার সাম্প্রতিককালে, রান্নার গ্যাসের বণ্টন ব্যবস্থায় নানা পরিবর্তন এনেছে। বর্তমানে, রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর থেকে মিসড কল করে গ্যাস বুক করা যায়। আর আবার এই ব্যবস্থার সাফল্যের উপর নির্ভর করেই, কালোবাজারি আটকাতে আরও এক নতুন ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে কেন্দ্র সরকার।

ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে তার প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ। তাই আগামী দিনে, বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়ার পরিষেবা চালু রাখতে, প্রত্যেক গ্রাহকেই নয়া ব্যবস্থা মেনে চলতে হবে। এই নতুন নিয়ম অনুসারে, গ্যাস ডিস্টিবিউটরের কাছে, প্রত্যেক গ্রাহকের আপ-টু-ডেট যাবতীয় তথ্য থাকা বাঞ্ছনীয়। তা না থাকলে, এই পরিষেবা বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

গার্হস্থ্য রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার বণ্টন ব্যবস্থায় আরও স্বচ্ছ্বতা আনার লক্ষ্যে তৎপর হয়েছে দেশের তেল উৎপাদন এবং বিপণন সংস্থাগুলিও। ইতিমধ্যেই প্রাথমিকভাবে এই নয়া ব্যবস্থা জয়পুরে চালু করা হয়েছে। এবং সেখানে যথেষ্ট ভালো সারা পাওয়া গেছে বলে তেল কোম্পানিগুলির তরফে দাবিও করা হয়েছে। আর তাই আগামী মাসের ১ তারিখ থেকেই, দেশের ১০০ টি স্মার্ট শহরে নতুন নিয়মে গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি গ্যাস পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া, আগামী দিনে সারা দেশব্যাপী এই নতুন গ্যাস বণ্টন ব্যবস্থা চালু করার ইঙ্গিতও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এর জন্য যেকোনো সমস্যা এড়াতে, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে, গ্যাসের ডিলারদের কাছে, গ্রাহকদের তরফে যে ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দেওয়া হয়েছে, তা ফের একবার যাচাই করে নিতে বলা হয়েছে। কারণ, মোবাইল নম্বর আপডেট না থাকলে এবং বাড়ির ঠিকানা নিয়ে কোনও সমস্যা হলে, অর্থাৎ ঠিকানা অসম্পূর্ণ থাকলে, আগামী দিনে সেই সকল গ্রাহকরা সমস্যায় পড়তে পারেন। উল্লেখ্য, এই নয়া ব্যবস্থা শুধুমাত্র গার্হস্থ্য রান্নার গ্যাসের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।

এবার একটু বিশদে জেনে নেওয়া যাক, নয়ুন ব্যবস্থা ঠিক কী। রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার বাড়িতে পৌঁছে দিতে, নতুন ব্যবস্থা চালু করেছে ইন্ডিয়ান অয়েল, ভারত পেট্রোলিয়াম-সহ বিভিন্ন তেল কোম্পানি। এই নতুন ব্যবস্থার নাম দেওয়া হয়েছে ডিএসি বা ডেলিভারি অথেনটিকেশন কোড। এই ব্যবস্থায় প্রত্যেক গ্রাহকদের মোবাইলে কোড পাঠানো হচ্ছে। ডেলিভারি পার্সন গ্যাস সিলিন্ডার বাড়িতে দিতে এলে, গ্রাহককে ডেলিভারি পার্সনকে তেল কোম্পানির পাঠানো সেই কোড জানাতে হবে।

তেল কোম্পানির তরফে বলা হয়েছে যে, কোড মিললে, তবেই গ্যাস সিলিন্ডার পাওয়া যাবে। উল্লেখ্য, এ রাজ্যের মধ্যে কলকাতা শহরে ইতিমধ্যেই পরীক্ষামূলকভাবে এই অথেনটিকেশন পদ্ধতি শুরু হয়ে গিয়েছে। তাই গ্যাস ডিস্টিবিউটরের কাছে আপনার সঠিক মোবাইল নম্বর এবং ঠিকানা নথিভুক্ত আছে কিনা বা আপডেট করা আছে কিনা, তা একবার যাচাই করে নিন। আর তা যদি করে না থাকেন, তাহলে ডেলিভারি বয়ের কাছ থাকা বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমেও করে নিতে পারেন। তেমনটাই জানিয়েছে তেল কোম্পানিগুলি। তাই বাড়িতে গ্যাসের সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়ার পরিষেবা পেতে, দেরি না করে, অবিলম্বে সব তথ্য ঠিক আছে কিনা, তা একবার যাচাই করে নিন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.

Back to top button