বড় সাফল্য মালদা পুলিশের! ভোটের মুখে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র, ধৃত ৩

বড় সাফল্য মালদা পুলিশের! ভোটের মুখে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র, ধৃত ৩
বড় সাফল্য মালদা পুলিশের! ভোটের মুখে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র, ধৃত ৩ / ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ মালদাঃ বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে মালদা জেলা জুড়ে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার ততই বেড়ে চলেছে। এবারে জেলার মানিকচক থানা এলাকা থেকে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র। গোপন সূত্রের খবরের জেরে পাচারের আগে আগ্নেয়াস্ত্রসহ তিন জনকে ধরে ফেলে মানিকচক থানার পুলিশ ও স্পেশাল টাস্কফোর্স এর কর্মীরা। ঘটনায় ভিন রাজ্যের যোগসুত্র রয়েছে বলে জানাচ্ছে পুলিশ কর্তারা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃত সাইয়েদ সুলতান আহমেদ, বিহারের কাঠিয়ার জেলার আমেদাবাদ এলাকার বাসিন্দা। এছাড়া ওপর দুজন ঝাঁকসু চৌধুরী ও সোনাচাদ চৌধুরী, রতুয়া থানার পশ্চিম রতনপুর এলাকার বাসিন্দা। প্রসঙ্গত রবিবার গভীর রাতে মানিকচক থানার পুলিশ ও স্পেশাল টাস্কফোর্স এর আধিকারিকরা গোপন সূত্রের খবরে যৌথ অভিযান চালায় মথুরাপুরের সংঙ্করটোলার ফুলহর নদীর তীরবর্তী এলাকায়। সেখানে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘোরাঘুরি করতে থাকা এই ৩ জনকে ধরে পুলিশ কর্তারা। যাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ৫ টি সেভেন এম এম পিস্তল , ৯০ রাউন্ড কার্তুজ ও ১০ টি ম্যাগাজিন।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে উদ্ধার হওয়া আগ্নেয়াস্ত্র গুলি বিহারের মুঙ্গের থাকে আনা হয়েছিল। এখানে পাচারের উদ্দেশ্য ছিল। তবে পাচারের আগেই ধৃতদের আগ্নেয়াস্ত্র সহ ধরে ফেলে পুলিশ। সোমবার ধৃত ৩ দুষ্কৃতিকে পুলিশ মালদা জেলা আদালতে পেশ করে। নির্বাচনের আগে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে জেলা জুড়ে। ভিন রাজ্যের দুষ্কৃতীরা জেলায় একের পর এক আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় জড়িত থাকায় গোটা ঘটনা জুড়ে তদন্ত শুরু করেছে জেলা পুলিশ।

আরো পড়ুনঃ   আসন্ন বিধানসভা লড়াইয়ে চ্যালেঞ্জ দিয়ে নন্দীগ্রামকেই বেছে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী! ১০ই মার্চ দেবেন মনোনয়ন