আবারও ভাঙন রাজ্য বিজেপিতে! পদ্মফুল ছেড়ে ঘাসফুলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক

আবারও ভাঙন রাজ্য বিজেপিতে! পদ্মফুল ছেড়ে ঘাসফুলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক
আবারও ভাঙন রাজ্য বিজেপিতে! পদ্মফুল ছেড়ে ঘাসফুলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ মুকুল রায়ের পর আবারও পদ্মশিবিরে ভাঙন। বিধায়ক পদ না ছাড়লেও নির্বাচনী ফল প্রকাশের পরই দল ছেড়েছিলেন মুকুল রায়। আর এবার দল ছাড়লেন আরও এক বিজেপি বিধায়ক। একুশের বিধাসভা নির্বাচনে বাংলায় ব্যাপক ভোটে জিতে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মুখ্যমন্ত্রীর আসনে তৃতীয়বারের জন্য বসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটের আগে বাংলার কোণায় কোণায় মোদী-অমিত শাহ ম্যাজিক পৌঁছে গেলেও, তাঁদের প্রচারে ব্যাপক সাড়া মিললেও, শেষ হাসি হেসেছে তৃণমূল কংগ্রেসই। ভাঙা পা নিয়েই খেলা দেখিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলায় মোদী-অমিত শাহ-সহ কেন্দ্রীয় নেতাদের ডেলি প্যাসেঞ্জারি শেষ পর্যন্ত কোনও কাজেই আসেনি।

বাংলা দখলের স্বপ্ন এবারের মতো অধরাই থেকে গেছে বিজেপির। মোদী-অমিত শাহ জুটির বিধানসভা ভোটে ২০০-র বেশি আসনে জেতার স্বপ্ন, ‘ডবল ইঞ্জিন’ সরকার গঠনের স্বপ্ন সবই স্বপ্নই থেকে গেছে। যদিও, ভোটের আগে তৃণমূলে ব্যাপক ভাঙন দেখা দিয়েছিল, বিজেপির নির্বাচনী প্রচার এবং মোদী ম্যাজিকে অনেকেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু ভোটের ফল প্রকাশের পর সেই চিত্রটা আবার উল্টে যায়। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর বিজেপি ছাড়ার হিড়িক পড়ে। সেইভাবেই ফের বিজেপিতে ভাঙন দেখা দিল। মুকুল রায়ের পর পদ্মফুলের পতাকা ছেড়ে ঘাসফুল পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন আরও এক বিধায়ক। যদিও তিনি নিজ কেন্দ্রে বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন। এবার বিজেপি ত্যাগ করলেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তন্ময় ঘোষ। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর থেকে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে বিষ্ণুপুরের বিধায়ক এবং শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু

 

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে ‘বাংলার মেয়ে’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরই ভরসা করেছে রাজ্যের মানুষ। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসে তৃণমূল। বিধানসভা ৭৭ আসন পায় বিজেপি। যদিও পরে বিধায়ক পদ ছাড়েন দু’জন। পদত্যাগ করেন নিশীথ প্রামাণিক এবং জগন্নাথ সরকার। সাংসদ পদেই বহাল থাকেন তারা। নিশীথ প্রামাণিক বর্তমানে মোদীর নয়া মন্ত্রিসভায় কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। এছাড়াও বিধায়ক পদ না ছাড়লেও, দল ছেড়েছেন মুকুল রায়। আর এবার বিষ্ণুপুরের বিধায়ক। খাতায় কলমে বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা কমে হয়েছে ৭৫।