রাজনৈতিক আক্রোশে দোকান পুড়লো বিজেপি কর্মীর

নিজস্ব প্রতিবেদন, হাওড়াঃ বিজেপি সমর্থকের দোকানে আগুন লাগানোর অভিযোগ উঠল শাসক দলের বিরুদ্ধে। গোটা ঘটনায় ভষ্মীভূত হয়ে গিয়েছ পুরো দোকান। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটে গতকাল রাতে বাগনান থানা এলাকার দেউলটিতে। অভিযোগের তীর ওই এলাকার দুই তৃণমূল সমর্থক ও তাদের দলের লোকজনের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় সূত্রের খবর, ওই এলাকার বাসিন্দা জগবন্ধু পাল একজন পুরোনো বিজেপি কর্মী। রাজনৈতিক রেষারেষির জেরে শুক্রবার রাতে জগবন্ধু পালের ডেকারেটার্সের দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ডেকারেটার্সের মালপত্র সহ পুরো দোকান আগুনে ভষ্মিভূত হয়ে যায়। দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। জগবন্ধু পালের অভিযোগ তিনি এলাকায় বিজেপি দলের সাথে যুক্ত। সেই কারণে রাজনৈতিক আক্রোশে তাঁকে মাঝে মাঝেই হুমকি দিতো তৃণমূলের লোকজন। তিনি মনে করেন সেই আক্রোশের জেরেই তৃণমূলের লোকজন তাঁর দোকানে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে গ্রামীণ হাওড়ার বিজেপি সভাপতি জানান, গত তিনমাস ধরে বাগনান এলাকায় তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। জগবন্ধু পালের দোকানে সিসিটিভি বসানো ছিল। বেশ কিছু দিন ধরেই সেটাকে খোলার জন্য তাঁকে চাপ দিচ্ছিল অঞ্চলের তৃণমূলের লোকেরা। তাদের কথা শুনে তিনি খুলেও দিয়েছিলেন। এরপরেই গতকাল রাতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয় তার দোকান। তিনি আরো দাবি করেন পুলিশ সুপারকে বলেও কোনো লাভ হয়নি। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে যদি বাগনান এলাকায় শান্তি না ফেরে তাহলে তাঁরা এলাকার লোকেদের সাথে নিয়ে শান্তি কিভাবে ফেরাতে হয় সেই ব্যবস্থা পথে নামবেন। তিনি বলেন, তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী মূলত এই বাগনান অঞ্চলের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপরে অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। প্রশাসন ব্যবস্থা না নিলে তারা নিজেরাই এবার উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবেন। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বাগনান তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা।

আরও পড়ুনঃ  বিগ বস-১৩ কে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ, বাড়ানো হল সলমানের নিরাপত্তা

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.