আসন্ন নির্বাচনে তাঁর ভুমিকা নিয়ে শোভনের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের

আসন্ন নির্বাচনে তাঁর ভুমিকা নিয়ে শোভনের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের
আসন্ন নির্বাচনে তাঁর ভুমিকা নিয়ে শোভনের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ অপরিকল্পিতভাবে বিজেপি নেতার ভূমিকায় প্রকাশ্যে রাস্তায় নামতে চান না শোভন চট্টোপাধ্যায়। বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও জানে এ রাজ্যে দলের মাথাদের মধ্যে অহংবোধের লড়াইটা কোন পর্যায়ে। ঠিক কীভাবে দলে তাঁর সঠিক মূল্যায়ণ হয়, এবার তা খতিয়ে দেখার কাজ শুরু হল।

অমিত শাহের পর শোভনবাবুর কাছে এসে সমীপে বিজেপির হেভিওয়েটরা সেই আলোচনা করে গেলেন। ২০২১-কে সামনে রেখে ঘুঁটি সাজাতে তৎপর বিজেপি। বাংলাকে ৫ টি অঞ্চলে ভাগ করে ৬ সেনাপতি নির্বাচন করেছে গেরুয়া শিবির। সেই সঙ্গে চলেছে বাংলায় পার্টির ঘরোয়া কোন্দল মিটিয়ে মাটি শক্ত করার কাজ।

শোভনবাবুর বাড়িতে শুক্রবার রাত ৯টা নাগাদ যান পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপির সহকারী পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন এবং রাজ্য বিজেপির সাংগঠনিক সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী। শোভন ও তাঁর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রায় ২ ঘণ্টা বৈঠক হয়। সূত্রের খবর, বিধানসভা নির্বাচনের আগে শোভনের ভূমিকা কী হবে, তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

অমিত শাহ কলকাতায় এসেই সাক্ষাৎ করেছিলেন অধুনা পার্টি সদস্য, প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কী নিয়ে কথা হল, তা প্রকাশ না করলেও, কোমর বেঁধে বিজেপির হয়ে মাঠে নামার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন একদা তৃণমূলের ভরসার পাত্র। এবার ভোট নিয়ে বিজেপির তৎপরতার মধ্যেই ফের শোভন চট্টোপাধায়ের বাড়িতে বিজেপি নেতৃত্ব।

বৈঠক নিয়ে শোভনেবাবুর কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। যদিও বিজেপি সূত্রে দাবি, তাঁর সঙ্গে কাল রাতের বৈঠক ছিল নিছকই সৌজন্য সাক্ষাৎ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.