করুণাময়ী মন্দিরে পুজো! প্রচার শুরু করলেন বেহালা পূর্বের বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী পায়েল

Image Source: Facebook Posted By @Paayel
করুণাময়ী মন্দিরে পুজো! প্রচার শুরু করলেন বেহালা পূর্বের বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী পায়েল / Image Source: Facebook Posted By @Paayel

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আর মাত্র কয়েকটা দিন। এরপরেই শুরু হয়ে যাবে বাংলার বিধানসভা নির্বাচন। তাই কোমর বেঁধে নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছে ডান-বাম প্রতিটি রাজনৈতিক দল। কেউই প্রচারে কোনও কামতি বা ফাঁক রাখতে চাইছে না। প্রচার শুরু করেছেন তারকা প্রার্থীরাও।

এবারের নির্বাচনে তারকা প্রার্থীদের অন্যতম মুখ হলেন পায়েল সরকার। কিছুদিন আগেই তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, ২৫ ফেব্রুয়ারি বিজেপির দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিয়েছিলেন তিনি। হেস্টিংসের নির্বাচনী কার্যালয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার উপস্থিতিতেই পদ্ম শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন টলিউড অভিনেত্রী। আর বিজেপিতে যোগ দিয়েই, তিনি এবারের নির্বাচনের টিকিট পেয়েছেন। বেহালা পূর্ব কেন্দ্রের প্রার্থী তিনি। এই কেন্দ্রে তাঁর প্রতিপক্ষ তৃণমূলের রত্না চট্টোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার টালিগঞ্জের করুণাময়ী মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করলেন পায়েল সরকার। এদিন হরিদেবপুর মহাত্মা গান্ধী রোড থেকেই নির্বাচনী প্রচার শুরু করলেন অভিনেত্রী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরাও। ফেসবুকে প্রচারের ও মন্দিরের ছবি শেয়ার করে পায়েল লেখেন, ‘মা করুণাময়ীর আশীর্বাদ এবং তোমাদের সকলের ভালবাসা নিয়ে শুরু করলাম আমার নতুন পথচলা।’

এদিন বেহালা পূর্বের প্রার্থী অভিনেত্রী পায়েল সরকার বলেন যে, ‘প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সবাই মিলে একটা সুন্দর সোনার বাংলা গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখছি। আমরা যাতে সবাই মিলে বাংলাকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে পারি, সেই প্রার্থনাই করলাম মায়ের কাছে।’

এদিন প্রচারে বেরিয়ে তিনি সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। কখনও আবার ঢুকে পড়েন রাস্তার ধারে দোকানে। এদিন অভিনেত্রী প্রচারে বেরিয়ে বলেন যে, খুব ভালো সাড়া পাচ্ছেন মানুষের থেকে। এও বলেন যে, এভাবে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতে পারা একটা দারুণ অভিজ্ঞতা তাঁর কাছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এবারের নির্বাচনে পায়েলের মতই একঝাঁক তারকা প্রার্থী রয়েছেন তৃণমূল, বিজেপি শিবিরে। পাশাপাশি রয়েছেন তারকা প্রার্থী। যেমন এখনও পর্যন্ত বিজেপির যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ পেয়েছে, সেখানে পায়েলের পাশাপাশি খড়গপুর থেকে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা হিরণ। চণ্ডীতলা থেকে বিজেপির হয়ে লড়ছেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত, এছাড়াও প্রার্থী হয়েছেন তনুশ্রী চট্টোপাধ্যায়।

অন্যদিকে, তৃণমূল শিবির থেকে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন অনেকেই। যেমন- আসানসোলে প্রার্থী হয়েছেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ, ব্যারাকপুরে পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। এছাড়াও প্রার্থী হয়েছেন সায়ন্তিকা, লাভলি মৈত্র, কাঞ্চন মল্লিক, জুন মালিয়া প্রমুখ। এখন দেখার এটাই যে, এই তারকা প্রার্থীরা রাজনীতির ময়দানে কতোটা কি করতে পারেন! তবে, ফলাফল  যাই হোক না কেন, নির্বাচনী প্রচারে কোনও খামতি রাখছেন না তাঁরা চেষ্টায়, কথায় এবং পরিশ্রমে। বাকিটা জানা যাবে ২ তারিখ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.