মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! ওয়ার্ধা নদীতে নৌকাডুবির জেরে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা

মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! ওয়ার্ধা নদীতে নৌকাডুবির জেরে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা
মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! ওয়ার্ধা নদীতে নৌকাডুবির জেরে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ মহারাষ্ট্রের অমরাবতীতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটল। সেখানকার ওয়ার্ধা নদীতে নৌকাডুবির জেরে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ৩ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি আটজনের খোঁজে তল্লাশি চলছে। জানা গিয়েছে, নৌকার অন্য যাত্রীদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। জানা গিয়েছে, নৌকার যাত্রীরা মন্দিরে যাচ্ছিলেন। সে সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার সকাল ১০ টা নাগাদ নৌকাটি শ্রীক্ষেত্র ঝুঞ্জের কাছ থেকে নদীর ওপারে যাচ্ছিল। সে সময়ই দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ওই নৌকাটি। যাত্রীদের সাহায্যের আর্তি শুনে বেশ কয়েকজন গ্রামবাসী নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েন যাত্রীদের উদ্ধার করতে। ঘটনার পরপরই কয়েকজন গ্রামবাসী স্থানীয় থানায় গিয়ে দুর্ঘটনার খবর দেন।

তড়িঘড়ি পুলিশও এসে পৌঁছায় ঘটনাস্থলে। দিনভর উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে বলেই পুলিশ সূত্রে খবর। পুলিশ সূত্রে খবর, নৌকায় বসা যাত্রীরা ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। তবে, নৌকাটি টাল সামলাতে না পেরে উল্টে যায়। তবে, কারা কারা এই দুর্ঘটনার কবলে পড়েছেন, তাঁদের পরিচয় এখনও স্পষ্ট হয়নি।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে, সেখানে যান স্থানীয় বিধায়ক দেবেন্দ্র। তিনি উদ্ধারকাজের খোঁজখবর নেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ভারী বৃষ্টির কারণে ওয়ার্ধা নদী ফুলে ফেঁপে উঠেছে। ঠিক কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটল তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে, গ্রামবাসীরা বলছেন, অতিরিক্ত পরিমাণ ওজন নেওয়ার জন্য এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া যাত্রীদের স্রোতের টানে বেশ কিছুদূর নিয়ে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছে তাঁরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে, গত সপ্তাহে অসমেও একটি বড় নৌকা দুর্ঘটনা ঘটে। নদীতে দুটি নৌকার ধাক্কা লাগে। দুর্ঘটনার জেরে, একটি নৌকা ডুবে যায়। অনেকেই সাঁতরে পাড়ে চলে এলেও, অনেক যাত্রীই এই ঘটনায় নিখোঁজ হয়ে যান বলেই জানা গিয়েছে। সেই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এনডিআরএফ এবং এসডিআরএফ যৌথভাবে উদ্ধারকাজে যোগ দেয়। জানা গিয়েছে, নিমাটি ঘাটের কাছে দুটি নৌকার মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়।