এক বছরের প্রেম পর্বের পর, ‘যৌন পুতুল’-এর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন এই বডিবিল্ডার! ভাইরাল ভিডিও

এক বছরের প্রেম পর্বের পর, ‘যৌন পুতুল’-এর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন এই বডিবিল্ডার! ভাইরাল ভিডিও
এক বছরের প্রেম পর্বের পর, ‘যৌন পুতুল’-এর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন এই বডিবিল্ডার! ভাইরাল ভিডিও

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ এক বছরের বেশি সময় ধরে তাঁরা একে অপরের সঙ্গে আছেন। প্রেম নিবেদনের পর্বও সারা, তাও বেশ কিছু সময় পেরিয়েছে। অপেক্ষা ছিল, শুধুই চার হাত এক হওয়ার পালা। করোনার কারণেই কিছুটা পিছিয়ে গিয়েছিল বিয়ের অনুষ্ঠান। কিন্তু আর দেরি নয়! তাই করোনা আবহের মধ্যেই গুরুত্বপূর্ণ এই কাজটা সেরেই ফেললেন কাজাখস্তানের এক বডিবিল্ডার। নাম ইউরি তোলোচকো। ভাবছেন, এতে আর নতুন কি রয়েছে! প্রেম-বিয়ে এগুলো তো খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।

হ্যাঁ স্বাভাবিক ব্যাপার তো বটেই। তবে, এই বিয়ে যে সে বিয়ে নয়। এই বিয়ে একেবারে অভিনব এক বিয়ে। কেন জানেন? স্পষ্ট করেই বলা যাক তাহলে। আসলে ইউরির পাত্রী আদতে একটি যৌন পুতুল বা সেক্স ডল। শুনে অবাক হচ্ছেন তো! তবে এটাই বাস্তব। আর এখানেই এই বিয়ের অভিনবত্ব। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ইউরির বিয়ের ভিডিও। যা দেখে অবাক নেটিজেনদের অনেকেই।

জানা গিয়েছে যে, অনেকদিন থেকেই ইউরির কাছে ছিল ‘সেক্স ডল’ মার্গো। গত বছরই ইউরি মার্গোকে প্রেম নিবেদন করেন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও জানান তাঁর প্রেম নিবেদনের কথা। এরপর লকডাউনের কারণে তাঁদের বিয়ে পিছিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত চলতি নভেম্বরেই সেরে ফেললেন বিয়েটা।

ইউরি নিজেই জানিয়েছেন যে, মার্গো আর পাঁচটা সেক্স ডলের মতো নয়। চেহারায় বদল আনতে, প্লাস্টিক সার্জারি করা হয়েছে একাধিকবার। এই প্রসঙ্গে ইউরি জানিয়েছেন যে, প্রথমবার তিনি যখন মার্গোকে গোটা বিশ্বের সঙ্গে পরিচিত করান, তখন অনেকেই তির্যক মন্তব্য করেছিলেন। এই কারণে পরবর্তী সময়ে জটিলতায় ভুগতে শুরু করেন মার্গো নিজেই। এরপরই ইউরি প্লাস্টিক সার্জারি করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, আর পাঁচটি সাধারণ বিয়ের মতো করেই আয়োজন করা হয়েছিল গোটা অনুষ্ঠান। বন্ধু-বান্ধবকে ডেকে, পার্টি দিয়ে, সেক্সডলকে সুন্দর গাউনে সাজিয়ে বিয়ে করলেন ইউরি৷ চারিদিক ফুল দিয়ে সাজানো। তার মাঝেই মার্গোকে আংটি পরিয়ে দিলেন ইউরি প্রেমিকার আঙুলে। এমনকী প্রথা মেনে চুম্বনও করেন। নবদম্পতিকে শুভেচ্ছাও জানান উপস্থিত অতিথিরা। বিয়ের ভিডিও পোস্ট হওয়াড় সঙ্গে সঙ্গেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনরাও তাঁদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.