শারীরিক অবস্থার উন্নতি!আজ ছুটি পাচ্ছেন বুদ্ধবাবু

শারীরিক অবস্থার উন্নতি!আজ ছুটি পাচ্ছেন বুদ্ধবাবু
শারীরিক অবস্থার উন্নতি!আজ ছুটি পাচ্ছেন বুদ্ধবাবু

শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে অনেকটাই, তাই আজ হাসপাতাল থেকে ছুটি পাচ্ছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তবে আগামী সাত দিন তাঁকে নিভৃতবাসে চিকিৎসকের কড়া পর্যবেক্ষণে থাকতে হবে।

হাসপাতাল সূত্রে খবর,প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সামান্য শ্বাসকষ্ট থাকলেও শুকনো কাশির যে সমস্যা ছিল তা কেটে গিয়েছে অনেকটাই। তবে এখন তিনি ইন্টারমিটেন্ট বাইপ্যপ সাপোর্টে রাখা হয়েছে তাঁকে। অক্সিজেন স্যাচুরেশন লেভেল বেড়ে হয়েছে ৯৬ শতাংশ।রবিবার তাঁর চেস্ট এক্স-রে করা হয়। সেই রিপোর্ট সন্তোষজনক বলেই জানিয়েছে হাসপাতাল। ফুসফুসে কোনও রকম সংক্রমণ ধরা পড়েনি তাঁর।

বুদ্ধবাবুর চিকিৎসায় ৭ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মাঝে তাঁর শরীরে সাইটোকাইন ঝড়ের ইঙ্গিত পেয়েছিলেন চিকিৎসকরা। তা অবশ্য বিশেষ বেগ দেয় নি। শুকনো কাশি হতে শুরু করে। তবে তাও এখন নিয়ন্ত্রণে।

ইন্টারলুকিন-৬ পরীক্ষার রিপোর্টে সাইটোকাইন স্টর্মের ইঙ্গিত মিলতেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শুরু করে মেডিক্যাল বোর্ড। দেওয়া হয় রেমডেসিভির ইনজেকশন। পাঁচ দিনের কোর্স শেষ হয়েছে ইতিমধ্যেই। আর তাতেই আগের চেয়ে সামান্য উন্নতি হয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর। জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বুধবার সকালে হাসপাতালের বুলেটিন সূত্রে আরও খবর, খাবার খাচ্ছেন তিনি নিজেই। তবে খাবারের পরিমাণ বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিকিত্‍সকরা। চিকিৎসক নার্সদের সঙ্গে কথা বলেছেন। রাতে ঘুম হয়েছে তাঁর। করোনা-আক্রান্ত হওয়ার পর, গত ২৫ মে বুদ্ধদেবকে আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেই সময় তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৮০-তে নেমে গিয়েছিল। তবে এখন অনেকটাই সুস্থ তিনি, তাই বুদ্ধবাবুকে হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।