বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

ট্যুইটার অধিগ্রহণের চুক্তি আপাতত স্থগিত, ট্যুইট করে জানালেন ইলন মাস্ক! কিন্তু কেন?

চৈত্রী আদক

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২, ০৫:৫৪ পিএম | আপডেট: মে ১৩, ২০২২, ০৬:০৬ পিএম

ট্যুইটার অধিগ্রহণের চুক্তি আপাতত স্থগিত, ট্যুইট করে জানালেন ইলন মাস্ক! কিন্তু কেন?
ট্যুইটার অধিগ্রহণের চুক্তি আপাতত স্থগিত, ট্যুইট করে জানালেন ইলন মাস্ক! কিন্তু কেন?

বংনিউজ২৪×৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ গত মাসেই জানা যায় ট্যুইটারের নতুন মালিক হচ্ছেন ইলন মাস্ক। তবে ট্যুইটার ইনকর্পোরেশন অধিগ্রহণের চুক্তি আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে। শুক্রবার ট্যুইট করে এমনটাই জানিয়েছেন খোদ ইলন মাস্ক। কিন্তু হঠাৎ এহেন সিদ্ধান্তের কারণ কী? ট্যুইটারের ভুয়ো এবং স্প্যাম অ্যাকাউন্ট সম্পর্কিত পূর্ণ বিবরণ এখনও অবধি তাঁর হাতে আসেনি। সেই কারণেই আপাতত স্থগিত চুক্তি।

গত ২ মে ট্যুইটার সংস্থার পক্ষ থেকে স্টক এক্সচেঞ্জগুলোকে জানানো হয়, জানুয়ারি থেকে মার্চ এই তিন মাসে ট্যুইটারের মোট দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ছিল প্রায় ২২ কোটি ৯০ লক্ষ। রয়টার্স প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এদের মধ্যে মাত্র ৫ শতাংশ বা তার কম অ্যাকাউন্টই হল ভুয়ো বা স্প্যাম অ্যাকাউন্ট।

এই ভুয়ো বা স্প্যাম অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত যাবতীয় বিবরণ এখনও হাতে পাননি ইলন। এই প্রসঙ্গে শুক্রবার তিনি ট্যুইট করে লেখেন, ‘ট্যুইটার চুক্তি সাময়িক ভাবে স্থগিত রাখা হয়েছে। কারণ ৫ শতাংশের কমে যে স্প্যাম এবং ফেক অ্যাকাউন্টগুলো রয়েছে সেই সংক্রান্ত কোনও হিসাব দেখানো হয়নি’। মাস্কের এই ট্যুইট প্রসঙ্গে ট্যুইটার সংস্থার পক্ষ থেকে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তবে ইলনের ট্যুইটের পর এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের শেয়ার মূল্য ২০ শতাংশ পড়ে গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের এপ্রিল মাসে ৪৪০০ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ট্যুইটার অধিগ্রহণের চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন ইলন মাস্ক। এর আগে অবশ্য ট্যুইটারের ৯ শতাংশ শেয়ার নিজের কুক্ষিগত করেছিলেন ইলন। আগের মাসে ট্যুইটার কেনার পরই বেশ কিছু পরিবর্তনের কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। সবার আগে এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম থেকে ‘স্প্যাম বট’ সম্পূর্ণভাবে সরিয়ে ফেলার প্রতিশ্রুতি দেন ইলন।

তাঁর অভিযোগ ছিল, ট্যুইটারে অসংখ্য ভুয়ো অ্যাকাউন্ট রয়েছে। যার জেরে বহু ভুয়ো সংবাদ ছড়িয়ে পড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দ্রুত ওই ভুয়ো অ্যাকাউন্টগুলো সরিয়ে ফেলার পদক্ষেপ নেন মাস্ক। এরপর ট্যুইটারের রেগুলেটরি কমিটিকে স্প্যাম অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার বিষয়ে জানানো হয়। এর পাশাপাশি ট্যুইটারের মডারেশন পলিসিরও পরিবর্তন করবেন বলে জানান ইলন মাস্ক।