শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

ATM থেকে টাকার বদলে বেরোচ্ছে সোনা! দেশের প্রথম ‍‍`গোল্ড এটিএম‍‍`, ভিডিও না দেখলেই মিস

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০২২, ১১:০২ পিএম | আপডেট: ডিসেম্বর ১১, ২০২২, ১১:৫৬ এএম

ATM থেকে টাকার বদলে বেরোচ্ছে সোনা! দেশের প্রথম ‍‍`গোল্ড এটিএম‍‍`, ভিডিও না দেখলেই মিস
ATM থেকে টাকার বদলে বেরোচ্ছে সোনা! দেশের প্রথম ‍‍`গোল্ড এটিএম‍‍`, ভিডিও না দেখলেই মিস

সুরক্ষিত ভবিষ্যতের জন্য প্রতিটি মানুষই সঞ্চয়ের দিকে ঝোঁকেন। আর সঞ্চয়ের জন্য ব্যাঙ্কে টাকা গচ্ছিত রাখেন তারা। আর প্রয়োজনে ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে অধিকাংশ মানুষই আজকাল এটিএম (ATM)-এর শরণাপন্ন হয়। আগে ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলতে গেলে ব্যাঙ্কে ঘণ্টার পর ঘন্টা লাইনে দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হত। এখন এটিএম কাউন্টারে গিয়ে নিজেই নিজের টাকা তুলতে পারেন সাধারণ মানুষ। ফলে ব্যাঙ্কে গিয়ে সময় অপচয় করা থেকে মুক্তি পেয়েছেন সাধারণ মানুষ।

এবার মানুষের জীবন আরো সহজ করার জন্য এবার আমাদের দেশে প্রথমবারের জন্য খোলা হল গোল্ড এটিএম। এই এটিএম মেশিন থেকেই সাধারণ মানুষ তার এটিএম কার্ড ব্যবহার করে সোনা কিনে ফেলতে পারবেন। অর্থাৎ, এখন আর সোনা কেনার জন্য দোকানে দোকানে ঘোরার দরকার নেই। এবার সরাসরি গোল্ড এটিএম থেকেই সোনা কিনে ফেলতে পারবেন সকলে। 

হায়দ্রাবাদের এক কোম্পানি গোল্ড সিক্কা প্রাইভেট লিমিটেড ওপেনকিউব টেকনোলজিস এই সোনার এটিএম তৈরি করেছে। গোল্ড সিক্কা কোম্পানিটি মূলত, সোনা কেনা-বেচা করে। আর দেশে প্রথমবারের জন্য এই গোল্ড এটিএম স্থাপন যে একটি অসাধারণ পদক্ষেপ সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। 

কোম্পানি অধিকর্তা জানিয়েছেন যে, এটি সাধারণ এটিএম এর মতোই কাজ করবে। সাধারণ ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড থেকেই যে কোনও ব্যক্তি এখান থেকে সোনা কিনতে পারবেন।  কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, ২৪ ঘণ্টাই এই পরিষেবা পাওয়া যাবে। সংস্থার সিইও সি.তরুজ জানিয়েছেন, এই এটিএম থেকে ০.৫ গ্রাম থেকে শুরু করে ১০০ গ্রাম পর্যন্ত সোনার কয়েন তুলতে বা কিনতে পারবেন। এক্ষেত্রে ওইদিন সোনার দাম কত থাকছে, তার উপরেই হবে সোনার দাম। সোনার রেট এটিএম মেশিনেই লাইভ দেখানো হবে। এরফলে কোনও জালিয়াতির ঘটনা ঘটবে না, লেনদেনে স্বচ্ছতা বজায় থাকবে বলে আশাবাদী গোল্ডসিক্কা। 

এই পরিকল্পনাটি একেবারেই এই কোম্পানির একটি অভিনব পদক্ষেপ। কোম্পানি জানিয়েছে যে, এই কাজটি করতে পেরে তারা অত্যন্ত গর্বিত। এই সংস্থার সিইও সি.তরুজ বলেছেন, কোম্পানি ধীরে ধীরে সারা দেশেই এই রকম এটিএম কাউন্টার খুলবে। আপাতত এই সংস্থাটি পেদ্দাপল্লি, ওয়ারাঙ্গল এবং করিমনগরে গোল্ড এটিএম খোলার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।কোম্পানিটি আশা করছে যে, আগামী ২ বছরে সারা ভারতবর্ষ জুড়ে এরা প্রায় ৩০০ গোল্ড এটিএম খুলতে সক্ষম হবে।