শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২

ভ্রমণকারীদের জন্য সুখবর! এক বাসেই ঘোরা যাবে শিলিগুড়ি থেকে নেপাল, নয়া পরিষেবা NBSTC-র

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:০৬ পিএম | আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:২৫ পিএম

ভ্রমণকারীদের জন্য সুখবর! এক বাসেই ঘোরা যাবে শিলিগুড়ি থেকে নেপাল, নয়া পরিষেবা NBSTC-র
ভ্রমণকারীদের জন্য সুখবর! এক বাসেই ঘোরা যাবে শিলিগুড়ি থেকে নেপাল, নয়া পরিষেবা NBSTC-র

কথায় বলে, বাঙালির পায়ের তলায় সর্ষে। ঘুরতে যেতে পছন্দ করেন না, এমন মানুষের সংখ্যা হয়তো হাতে গোনা। সুযোগ পেলেই ব্যাগপত্র গুছিয়ে অজানার সন্ধানে বেরিয়ে পড়েন ভ্রমণপ্রেমীরা। আর বাঙালির তথা রাজ্যের বাইরের পর্যটকদের কাছেও ছুটি কাটানোর জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রগুলির অন্যতম হচ্ছে উত্তরবঙ্গের কোনও স্থান। অনেকে আবার উত্তরবঙ্গ থেকে অন্যান্য দর্শনীয় স্থান অর্থাৎ নেপাল-কাঠমাণ্ডুতেও রওনা দেন।

শুধু পর্যটকরাই নয়, উত্তরবঙ্গের একাধিক বাসিন্দাও নেপাল ভ্রমণে যান। এবার তাদের সকলের জন্যই সুখবর দিল রাজ্য সরকার। এবার উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার তরফ থেকে চালু করা হল এমন এক বাস পরিষেবা, যাতে একটি বাসে চড়েই শিলিগুড়ি থেকে নেপাল ঘুরে আসতে পারবেন যাত্রীরা। ইতিমধ্যেই এই বাস পরিষেবা পুরোদমে চলছে।

চলতি বছরের জুলাই মাসেই এই বাস পরিষেবার সূচনা করেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। যে সকল পর্যটক শিলিগুড়ি থেকে নেপাল ঘুরতে যেতে চান তারা এই বাস পরিষেবার মাধ্যমে সহজেই বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখতে পারবেন। উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, শিলিগুড়ি থেকে নেপালের কাঠমাণ্ডু পর্যন্ত বাস পরিষেবা চালু করার ক্ষেত্রে একটি বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছে। এই ধরনের বাস পরিষেবা চালু করার ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের মূল লক্ষ্য উত্তরবঙ্গের অর্থনীতি এবং উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থাকে পুনরায় উজ্জীবিত করা।

উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, শিলিগুড়ি থেকে কাঠমাণ্ডু ভ্রমণকারী এই বাসটি প্রতি সপ্তাহের সোমবার, বুধবার ও শুক্রবার শিলিগুড়ির তেনজিং নোরগে বাসস্ট্যাণ্ড থেকে ছাড়ে। অন্যদিকে সপ্তাহের মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শনিবার নেপালের কাঠমাণ্ডু থেকে শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। সফরের জন্য মাথাপিছু ভাড়া ১৫০০ টাকা।

প্রসঙ্গত, মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন, আগামী দিনে শিলিগুড়ি থেকে বাংলাদেশ পর্যন্তও বাস পরিষেবা চালু হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশেই এই সকল বাস পরিষেবা চালু করা হচ্ছে বলে দাবিও করেন মন্ত্রী।