কয়লা কাণ্ডের তদন্তে আজ পশ্চিমবঙ্গের ৪৫ জায়গায় তল্লাশি চালাল সিবিআই

কয়লা কাণ্ডের তদন্তে আজ পশ্চিমবঙ্গের ৪৫ জায়গায় তল্লাশি চালাল সিবিআই
কয়লা কাণ্ডের তদন্তে আজ পশ্চিমবঙ্গের ৪৫ জায়গায় তল্লাশি চালাল সিবিআই

বেআইনি কয়লা পাচার কাণ্ডের তদন্তে নেমে আজ কলকাতা, বর্ধমান, পুরুলিয়া সহ পশ্চিমবঙ্গের ৪৫টি জায়গায় তল্লাশি চালায় সিবিআই। পাচারকারীদের অফিস, বাড়ি এবং যাবতীয় ঠিকানায় তন্নতন্ন করে তল্লাশি চালিয়েছে তদন্তকারীরা।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার করা একটি এফআইআরের ভিত্তির ওপরেই দিনের তদন্ত চালানো হয়। তদন্তে উঠে এসেছে একাধিক কয়লা মাফিয়া নাম। বর্ধমান, জামুরিয়া, আসানসোল, পুরুলিয়া শহরের বিভিন্ন জায়গায় তদন্ত চালায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। এদিন কয়লা পাচার চক্রের মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি ওরফে লালার আসানসোলের বাড়িতে হানা দিয়েছিল সিবিআই।

শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, উত্তরপ্রদেশ, ঝারখণ্ড এবং বিহারেও কয়লা কেলেঙ্কারি জন্য এদিন সিবিআই তল্লাশি চালায়। সূত্রের খবর, অনুপ যিনি নিজের এলাকায় লালা নামে পরিচিত তিনি কয়লা পাচারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত। বাংলা, ঝারখন্ড বর্ডারে কয়লা পাচারের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন তিনি, অভিযোগ উঠেছে এমনটাই। ইতিমধ্যেই তার বিরুদ্ধে তদন্ত করা হচ্ছে। এই মাসের প্রথমের দিকে তাকে নোটিশ পাঠিয়েছিল আয়কর দপ্তর।ঠিক সেই সময়ই রাজ্য সফরে এসেছিলেন অমিত শাহ। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে সেইসময় অমিত শাহ বলেছিলেন, লালার বিরুদ্ধে তদন্ত করায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্বিগ্ন কেন! প্রসঙ্গত, তার আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে বলেছিলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থাকে ব্যবহার করছে কেন্দ্র সরকার।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.