বর্ধিত হল মেয়াদ! কেন্দ্র সরকারের বড় সিদ্ধান্ত, এই মাস অবধি বিনামূল্যে মিলবে কেন্দ্রের রেশন

বর্ধিত হল মেয়াদ! কেন্দ্র সরকারের বড় সিদ্ধান্ত, এই মাস অবধি বিনামূল্যে মিলবে কেন্দ্রের রেশন
বর্ধিত হল মেয়াদ! কেন্দ্র সরকারের বড় সিদ্ধান্ত, এই মাস অবধি বিনামূল্যে মিলবে কেন্দ্রের রেশন

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা অতিমারি পরিস্থিতির কারণে দেশব্যাপী চালু হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারের বিনামূল্যে রেশন। করোনা আবহে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় যে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হচ্ছিল, দেশের জনসাধারণকে, তার মেয়াদ শেষ হচ্ছে চলতি মাসের ৩০ নভেম্বর। যদিও তার আগেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব সুধাংশু পাণ্ডে জানিয়েছেন, আগামী ৩০ নভেম্বরের পর বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার মেয়াদ বৃদ্ধির কোনও প্রস্তাব তাঁদের কাছে আসেনি। এরপরই শোরগোল পড়ে যায়। গুঞ্জন ওঠে যে, আগামী ৩০ নভেম্বরের পর থেকে বন্ধ হয়ে যাবে  প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় বিনামূল্যে রেশন দেওয়া।  বিরোধীরাও এ বিষয়ে গুঞ্জন উঠতেই সরব হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র aমোদিকে চিঠি লেখেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। এরপর বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল মোদি সরকার।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার আরও চার মাস বর্ধিত করা হল। ২০২২ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত বাড়ানো হল এই বিনামূল্যে রেশন প্রকল্পের সময়সীমা। আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। অনুরাগ থাজুর এই বিসিয়ে আরও জানিয়েছেন যে, গোটা বিশ্বে ভারতই একমাত্র দেশ, যে এত বড় পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছে। এই বিনামূল্যে রেশন প্রকল্পের জন্য মোট ব্যয় প্রায় ২ লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকা। প্রায় ৬০০ মেট্রিক টন রেশন দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে এই প্রকল্পের আওতায়। পঞ্চম দফার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যান অন্ন যোজনার জন্য ৫৩ হাজার ৩৪৪ কোটি ৫২ লাখ টাকার ভর্তুকিযুক্ত রেশন বণ্টন করা হবে বলেও জানিয়েছেন অনুরাগ ঠাকুর। এই সিদ্ধান্তের জেরে নিশ্চিন্ত হল সাধারণ মানুষ।

প্রতীকী ছবি

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে কেন্দ্রীয় খাদ্য সচিব সুধাংশু পাণ্ডে জানিয়েছেন, যেহেতু দেশের অর্থনীতি আবার একটু-একটু করে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে, খোলা বাজারেও খাদ্যশস্য বিক্রি হচ্ছে, তাই এই প্রকল্পের মেয়াদ নতুন করে বৃদ্ধির এখনও কোনও প্রস্তাব আসেনি। কিন্তু বিরোধীরা দাবি তোলে, দেশের অর্থনীতি এখনও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। বহু মানুষ কাজ হারিয়ে ধুঁকছেন। এই পরিস্থিতিতে বিনামূল্যে রেশন না পেলে অনেকেই চরম অসুবিধায় পড়তে পারেন। এরপরই এবার বিনামূল্যে রেশনের মেয়াদ আগামী মার্চ মাস পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

দেশের করোনা অতিমারি পরিস্থিতিতে মুখ থুবড়ে পড়া অর্থনীতিতে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার মাধ্যমে খাদ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এই প্রকল্পের আওতায় জাতীয় খাদ্য নিরাপত্তা আইনের অধীনে যে যে উপভোক্তা রয়েছেন, তাঁদের প্রত্যেককে প্রতি জন পিছু পাঁচ কেজি অতিরিক্ত খাদ্য শস্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী।