আজও উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! কেমন থাকবে দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া? কী বলছে আবহাওয়া দফতর?

আজও উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! কেমন থাকবে দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া? কী বলছে আবহাওয়া দফতর?
আজও উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! কেমন থাকবে দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া? কী বলছে আবহাওয়া দফতর? / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ নিম্নচাপের জেরে একটানা বৃষ্টির পর খানিক স্বতি মিলেছে। রোদের দেখাও মিলেছে। যদিও কাল বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে। এদিকে, কালকের পরে আজও উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। এর পাশাপাশি পাহাড়ে ধসের আশঙ্কা এবং ভারী বৃষ্টির কারণে নদীর জলস্তর বাড়ার সম্ভবনার কথাও জারি করা হয়েছে।  এছাড়াও নিচু এলাকায় প্লাবনের আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হলেও, দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির কোন সম্ভবনা নেই এই মুহূর্তে। তবে, দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। উত্তর-পশ্চিম ভারতে ধীরে ধীরে শুরু হবে শুষ্ক আবহাওয়া। আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন, ৬ অক্টোবর, বুধবার উত্তর-পশ্চিম ভারতের কিছু অংশে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নিতে পারে। পশ্চিম রাজস্থান, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড়, দিল্লি এবং উত্তরপ্রদেশের কিছু অংশে এই বিদায় পর্ব শুরু হবে।

ঘূর্ণিঝড় ‘শাহিন’ এখন ক্রমশ পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে যাবে ওমানে উপকূলের দিকে। সোমবার এটি ১১০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে আছড়ে পড়ার সম্ভবনা সে দেশে। আবহাওয়াবিদদের কথায়, ভারতীয় উপকূল থেকে এটি দূরে থাকায় এর কোনও প্রভাব পড়বে না ভারতে। পূর্ব বিহার এবং সংলগ্ন এলাকায় রয়েছে নিম্নচাপ। এর সঙ্গে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।  এই নিম্নচাপ থেকে একটি অক্ষরেখা বিস্তৃত হয়েছে উত্তর ওড়িশা পর্যন্ত।  আবার দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের মধ্যভাগে তৈরি হয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত। এটি তামিলনাডু উপকূল পর্যন্ত বিস্তৃত। এই ঘূর্ণাবর্ত থেকে একটি অক্ষরেখা কর্ণাটক উপকূল পর্যন্ত বিস্তৃত। এছাড়াও নতুন করে নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে আরব সাগরের কেরল উপকূলে। দু’দিনে এটি নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা।

আজ উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। হাওয়া অফিস সূত্রে বলা হয়েছে, ভারী বৃষ্টি হবে  জলপাইগুড়ি, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার জেলায়।  বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টি হবে দার্জিলিং ও কালিম্পং জেলায়। তবে, আগামিকাল, মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টি কমবে উত্তরবঙ্গে। অন্যদিকে, এই মুহূর্তে  দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির কোনও সর্তকতা নেই। আগামী ২৪ ঘণ্টায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টি হতে পারে বিক্ষিপ্তভাবে।  তাপমাত্রা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকবে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হয়েছে, আজ কলকাতার  আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা। তাপমাত্রা স্বাভাবিকের উপরে থাকবে। জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বাড়বে। আজ সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ৷ স্বাভাবিকের থেকে যা ১ ডিগ্রি উপরে।আগামী কয়েকদিন বৃষ্টি হবে বিহার উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলি-তে। অসম ও মেঘালয়ে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস। ভারী বৃষ্টি হবে তামিলনাডু, কেরল, লাক্ষাদ্বীপ, কর্ণাটক, কোঙ্কন, গোয়া ও মহারাষ্ট্রে।